সংবাদ শিরোনাম :
বালু উত্তোলনে অস্তিত্ব সংকটে নদী : খোয়াই, করাঙ্গী, সুতাং ও ইছামতী হুমকির মুখে পঞ্চগড়ে নৌকাডুবিতে মৃত্যু বেড়ে ৩১ : স্বজনদের আহাজারি শহরে অবৈধভাবে প্যাকেটজাত সরিষার তেল ও নকল বিড়ি মজুদের দায়ে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড ৪২টি চোরাই মোবাইলসহ চোরচক্রের মূলহোতা জগলু নবীগঞ্জে আটক মাধবপুরে বিএনপি নেতা কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে ওসিসহ আহত ১০ : আটক ৩ আগামীকাল রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা দখলমুক্তের দাবিতে সাইকেল র‍্যালি ওয়াশিংটন ডিসি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার যুবকের ইশাতের ছবি ব্যবহার করে প্রতারণা আটক করেছে ভোলা জেলা সিআইডি যৌতকের টাকা নিয়ে গৃহবধুকে নির্যাতন: নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন গৃহবধু গেল ৫ দশকে হবিগঞ্জ থেকে বিলীন অর্ধেকের বেশি নদী : বাকিগুলোও সংকটাপন্ন
হবিগঞ্জে ২৪টি বাগানে শ্রমিকদের ধর্মঘট চলমান ॥রাস্তায় অবরোধ

হবিগঞ্জে ২৪টি বাগানে শ্রমিকদের ধর্মঘট চলমান ॥রাস্তায় অবরোধ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দৈনিক মজুরী বৃদ্ধির দাবিতে হবিগঞ্জের ২৪টি চা বাগানে শনিবার সকাল থেকে ধর্মঘট চলছে। দাবি মানাতে তারা ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন। যদি সোমবারের মধে দাবি মানা না হয় তবে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধেরে হুমকি দেন শ্রমিক নেতারা। গতকাল শনিবার বেলা ১১টা থেকে তারা আন্দোলনে নামেন। বাহুবল উপজেলার কামাইছড়া চা বাগানে জড়ো হতে থাকেন বিভিন্ন বাগানের শ্রমিকরা। এ সময় তারা বিক্ষোভ মিছিল করেন। এক পর্যায়ে শ্রমিকরা ঢাকা-মৌলভীবাজার মহাসড়ক অবরোধ করেন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত শ্রমিকরা আন্দোলন থেকে সরে আসবেননা বলে জানান। অপরদিকে বাহুবল উপজেলা সদরে আরও কয়েকটি বাগানের শ্রমিকরা উপজেলা পরিষদের সামনে রাস্তা অবরোধ করে সমাবেশ করেন। এতে একাত্মতা প্রকাশ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সাবেক সভাপতি আব্দুল কাদির চৌধুরী, উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ খলিলুর রহমান প্রমূখ। কামাইছড়া চা বাগানের পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি বিমল ভর বলেন, আপনারা খাবেন আর আমরা খাবনা তা হতে পারেনা। দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতির বাজারে দৈনিক ১২০ টাকা মজুরী তাদের খাবারই হয়না। তারা কি করে সন্তানদের লেখাপড়া শেখাবেন, ঔষধ কিনবেন কি দিয়ে আর জামাকাপড়ই কিনবেন কি দিয়ে। অতএব দৈনিক কমপক্ষে অন্তত ৩০০ টাকা হলে ঠিকমতো খাবার খেয়ে বাঁচতে পারবেন। মালিকপক্ষ শুধু আমাদের সাথে টালবাহান করছে। কিন্তু আমাদের দৈনিক মজুরী বৃদ্ধি করেনা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলতে থাকবে।
বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নৃপেন পাল বলেন, আমাদের আন্দোলন চলতে থাকবে। ৪৮ ঘন্টার মধ্যে যদি দাবি মানা না হয় তবে মঙ্গলবার আমরা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করবো।
সমাবেশে যোগ দিয়ে বাহুবল উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বলেন, শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি এটি। আমরা অনুরোধ করবো কর্তৃপক্ষ যেন তাদের এ দাবি মেনে নেন। তাছাড়া চা শ্রমিকরা বরাবরই আওয়ামী লীগের ভোটার। সে হিসেবে প্রধানমন্ত্রীও এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। বালিশিরী ভ্যালির সভাপতি সুভাষ দাশ বলেন, ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আমাদের দাবি মানতে হবে। অন্যথায় আমরা মঙ্গলবার থেকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করবো। এখন সে পর্যন্ত আমাদের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। কোন শ্রমিক কাজে যোগ দেবেনা। বিক্ষোভ, সমাবেশ ও মানববন্ধন চলবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com