সংবাদ শিরোনাম :
সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে এগিয়ে নিতে সকলের এক যোগে কাজ করার আহ্বান : আবু জাহির রাজধানীর বস্তি থেকে হবিগঞ্জের শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার পার্কিং করা বাসে ৩০ কেজি গাঁজা, গ্রেফতার ৩ ‘বাবা নির্যাতন সহ্য করতে পারছি না, আমাকে উদ্ধার করো : সৌদি থেকে মেয়ের আকুতি ভারতের ত্রিপুরায় প্রচুর বৃষ্টিপাত হওয়ায় খোয়াই নদীর পানি বৃদ্ধি রাস্তায় পড়ে থেকে নষ্ট হচ্ছে টেলিফোন বক্স ॥ দেখার যেনো কেউ নেই শায়েস্তানগর হকার মার্কেট দখল করে ব্যবসা ॥ নেয়া হয়েছে অবৈধ বিদ্যুত সংযোগ হবিগঞ্জ শহরে ব্যাটারী চালিত রিকশার বিরুদ্ধে অভিযান বাধা দিলেই খুন করত শুক্কুর আলী-দিদার আগামী ৮ অক্টোবর হবিগঞ্জে শ্রমিক ইউনিয়ন নির্বাচনে সব গণপরিবহন বন্ধ
ভারতের অর্থায়নে হবিগঞ্জে নির্মাণ হচ্ছে শিশু পার্ক

ভারতের অর্থায়নে হবিগঞ্জে নির্মাণ হচ্ছে শিশু পার্ক

স্টাফ রিপোর্টার্: মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক বীর মুক্তিযোদ্ধা দেওয়ান ফরিদ গাজীর স্মরণে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা শিশু পার্কের’ নির্মাণকাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। ভারতের অর্থায়নে এই পার্ক নির্মাণ করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ। এ উপলক্ষে দুপুর সাড়ে ১২টায় উপজেলা পরিষদ মাঠে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহি উদ্দিনের সভাপতিত্বে পল্লী জীবিকায়ন প্রকল্প কর্মকর্তা শাকিল আহমেদের পরিচালনায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) উত্তম কুমার দাশ, পৌর মেয়র ছাবির আহমেদ চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গতি গোবিন্দ দাশ, নবীগঞ্জ থানার ওসি ডালিম আহমেদ, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাদেক হোসেন, কৃষি কর্মকর্তা এ কে এম মাকসুদুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা জালাল সিদ্দিকী প্রমুখ।

সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ট সন্তান। তারা নিজের এবং পরিবারের কথা চিন্তা না করে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তাদের এই আত্মদানের বিনিময়েই পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। এই সূর্য সন্তানদের সম্মানে কিছু করতে পারলে আমার বাবা প্রয়াত সংসদ সদস্য, মা-মাটি ও মানুষের নেতা দেওয়ান ফরিদ গাজীর প্রতি সম্মান জানানো হবে। কারণ তিনি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক।

তিনি বলেন, এই শিশু পার্ক নির্মাণে ভারত সরকার সোয়া কোটি টাকা দেবে। যদি ৩/৪ কোটি টাকাও লাগে সেই টাকাও তারা দেবে বলে আশ্বস্ত করেছেন। এখন আমাদের করণীয় সুন্দর একটি পরিকল্পনা। এ জন্য তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com