বাহুবলে হ্যান্ডকাপসহ দুই আসামীর পলায়ন: হ্যান্ডকাপ উদ্ধার

বাহুবলে হ্যান্ডকাপসহ দুই আসামীর পলায়ন: হ্যান্ডকাপ উদ্ধার

lokaloy24.com

 

বাহুবল (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের বাহুবলে পুলিশের হাত থেকে হ্যান্ডকাপসহ দুই আসামী পালিয়ে যাওয়ার ২২ ঘন্টা পর পরিত্যাক্ত অবস্থায় একটি হ্যান্ডকাপ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারী) বিকেল ৪টায় উপজেলার লামাতাশী ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের একটি ব্রিজের কাছ থেকে হ্যান্ডকাপটি উদ্ধার করা হয়।

শনিবার দুপুরে সরকারি কাজে বাধা দান ও পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় একটি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শাহ আলী হ্যান্ডকাপটি উদ্ধার করেন।

বাহুবল মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, বাহুবল উপজেলার পূর্ব জয়পুর গ্রামে একটি মামলার আসামী গ্রেফতার করে নিয়ে আসার সময় এলাকার লোকজন পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে হ্যান্ডকাপ সহ দুই আসামী পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

এ ঘটনায় শনিবার দুপুরে ২৬ জনের নাম উল্লেখসহ দেড়শতাধিক লোকজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশের এসআইসহ ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তাদেরকে বাহুবল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পুলিশ অভিযনি চালিয়ে গ্রামের নারীসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার পূর্ব জয়পুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, কামাইছড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সেলিম, এএসআই শিতিল ঘোষ, কনষ্টেবল রাজীব পুরকায়স্থ ও মিজানুর রহমান।

পলাতক আসামীরা হলেন- উপজেলার পূর্ব জয়পুর গ্রামের জাহির মিয়া (৪৫) ও তার ছেলে হৃদয় (২০)।

আটককৃতরা হলেন-একই গ্রামের আব্রু মিয়ার স্ত্রী রিনা বেগম (৩৫), রফিক মিয়ার স্ত্রী অলিনা খাতুন (৩২), রফিক মিয়ার বোন জাহানারা খাতুন (২৮), জাহির মিয়ার ছেলে জীবন (১৫), আব্দুর রহিম বিডিআর এর ছেলে মনসুর আলম (২০) ও মৃত ছেরাগ আলীর স্ত্রী শহিদা খাতুন (৫০)।

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে থানার এসআই সেলিম আহমদ বাদী হয়ে ২৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত দেড়শতাধিক লোকজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তভার দেওয়া হয় থানার এসআই শাহ আলীকে।

জানা যায়, উপজেলার পূর্ব জয়পুর গ্রামের জাহির মিয়ার পরিবার ও তারই আপন ছোট ভাই কালামের স্ত্রী নাছিমা বেগমের সাথে পারিবারিক বিরোধ নিয়ে এক সপ্তাহ পূর্বে ঝগড়া বিবাদ হলে নাছিমা বেগম এ নিয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই মামলার আয়ু কামাইছড়া ফাড়ির ইনচার্জ এসআই সেলিম ও এএসআই শীতিল ঘোষ একদল পুলিশ জাহির মিয়া ও তার ছেলে হৃদয়কে তাদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। এসময় ওই বাড়ির উৎসুক মহিলারা পুলিশের কাছে ভীড় জমান। এক পর্যায়ে পুলিশের হাত থেকে গ্রেফতারকৃত আসামীরা হ্যান্ডকাপসহ পালিয়ে যায়।

পূর্ব জয়পুর গ্রামের দরবেশ আলী জানান, এ ঘটনার পর থেকে নারী পুরুষ গ্রাম থেকে পালিয়ে গেছে। গ্রামে কোন পুরুষ নেই। কিছু কিছু বাড়িতে নারীরা বসবাস করলেও , ঘটনাস্থল এলাকার কোন নারী পুরুষ বাড়িতে নেই বলে জানান তিনি।

বাহুবল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বিষয়গুলির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সরকারী কাজে বাধা ও পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। হ্যান্ডকাপসহ পলাতক আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com