ঘোষিত হলো আগামী বিপিএল শুরুর তারিখ

ঘোষিত হলো আগামী বিপিএল শুরুর তারিখ

ঘোষিত হলো আগামী বিপিএল শুরুর তারিখ

খেলাধুলা ডেস্ক : বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পরবর্তী আসর শুরুর তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে (বিসিবি) বিপিএল পরিচালনা পরিষদের সভা শেষে, পরিষদের সদস্য জালাল ইউনুস জানান, বিপিএলের ষষ্ঠ আসর আগামী বছরের জানুয়ারির পাঁচ তারিখ থেকে শুরু হয়ে চলবে আট ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

জালাল ইউনুস বলেন, ‘আজ আমাদের একটা অনানুষ্ঠানিক মিটিং ছিলো। ফ্রেঞ্চাইজিগুলোর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। আমরা সামনে এ রকম আরো মিটিং করবো, চেষ্টা করবো বিপিএলকে আরো সামনে এগিয়ে নিতে। প্রতি মাসেই হয়তো আমরা বসবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘বিপিএলের ষষ্ঠ আসর শুরু হবে পাঁচ জানুয়ারি থেকে, চলবে আট ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এর আগে অক্টোবরে আমরা প্লেয়ার্ড ড্রাফট করবো। তারিখটা পরে জানানো হবে।’

এ বছরের বিপিএল হওয়ার কথা ছিলো অক্টোবরের পাঁচ তারিখ থেকে। কিন্তু এর দুই মাস পরেই জাতীয় নির্বাচন। ফলে সে সময় দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় থাকবে কড়াকড়ি। যে কারণে সময় বিপিএলের দলগুলো যথাযথ নিরাপত্তা দেয়া সম্ভব নাও হতে পারে। এ কারণে বিপিএলের পরিচালনা বিভাগ জানিয়ে দেয় যে, ২০১৮ সালে বিপিএল আয়োজন করা সম্ভব নয়।

বিপিএলের সর্বশেষ আসর অনুষ্ঠিত হয় ২০১৭ সালের নভেম্বর-ডিসেম্বরে। কিন্তু এ বছর এক মাস এগিয়ে অক্টোবরে বিপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো পরিচালনা পরিষদ। সেই সিদ্ধান্ত আবার পরিবর্তন করতে হচ্ছে জাতীয় নির্বাচনের কারণে।

গত বিপিএলে স্থানীয়দের মধ্যে চারজন করে পুরোনো খেলোয়াড় দলে রাখার সুযোগ পেয়েছে দলগুলো। চারজনের মধ্যে তিনজন ছিলো যে কোনো ক্যাটাগরির আর একজন করে ছিলো আইকন ক্যাটাগরির। এ বছরও প্রতিটি দল দেশি ও বিদেশি মিলিয়ে চারজন করে খেলোয়াড় ধরে রাখতে পারবে।

এ বিষয়ে খুলনা টাইটান্সের প্রতিনিধি ও বিসিবি পরিচালক কাজী ইনাম আহমেদ বলেন, ‘ফ্রেঞ্চাইজির পক্ষ থেকে আমরা বলেছি, এ বছর খেলোয়াড় ধরে রাখার যে নিয়ম করা হবে, তা যাতে সামনের সময়গুলোতেও অব্যাহত থাকে। এতে আমাদের প্রস্তুতি নিতে সহজ হবে। বিপিএল পরিচালনা পরিষদ থেকে এ বিষয়টি বিবেচনা করার কথা বলা হয়েছে।’

২০১৭ সালের বিপিএলে প্রতিটি দল পাঁচজন করে বিদেশি খেলোয়াড় একাদশে রাখার সুযোগ পেয়েছে। এ বছর কী হবে, সে বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন জালাল ইউনুস।

বিপিএল পরিচালনা পরিষদের সভায় বোর্ডের আয় থেকে ফ্রেঞ্চাইজিদের সাথে লভ্যাংশ ভাগ করা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন জালাল ইউনুস। এ বিষয়ে পরে আরো আলোচনা হবে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com