কলেজছাত্রের সাথে স্কুলছাত্রীর ১২ দিনের প্রেম! বিয়ের চাপ দিতেই ধর্ষণের শিকার কিশোরী

কলেজছাত্রের সাথে স্কুলছাত্রীর ১২ দিনের প্রেম! বিয়ের চাপ দিতেই ধর্ষণের শিকার কিশোরী

কলেজছাত্রের সাথে স্কুলছাত্রীর ১২ দিনের প্রেম! বিয়ের চাপ দিতেই ধর্ষণের শিকার কিশোরী
কলেজছাত্রের সাথে স্কুলছাত্রীর ১২ দিনের প্রেম! বিয়ের চাপ দিতেই ধর্ষণের শিকার কিশোরী

জয়পুরহাট প্রতিনিধি- প্রেমের সম্পর্ক খুব বেশিদিনের নয়! মাত্র ১০/১২ দিন। চোখে হাজারো স্বপ্ন একে যুবকের প্রেমে পড়েছিলো কিশোরী। তবে বিধিবাম, অল্পসময়েই প্রেমিক যুবকের ‘দুরভিসন্ধি’ আঁচ করতে পেরে নিজের ‘অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলো কিশোরী। কিন্তু তার এই অধিকার চাওয়াই যেন ‘কাল’ হলো শেষ অবধি! প্রতারক প্রেমিক বিয়ে তো দূর ধর্ষণ করে ফেলে রেখে পালিয়েছে কিশোরীকে ।

দশম শ্রেণির ছাত্রী এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে একই গ্রামের এক কলেজ ছাত্রের বিরুদ্ধে। ঘটনার শিকার ঐ কিশোরীকে মঙ্গলবার জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেছে তার পরিবার। জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বটতলী এলাকার একটি স্কুলে অধ্যায়নরত।

অন্যদিকে, অভিযুক্ত যুবক সাগর হোসেন পাঁচবিবি উপজেলার দানেজপুর এলাকার মনোয়ার হোসেনের ছেলে ও পাঁচবিবি মহিপুর সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী।

ঘটনার শিকার কিশোরীর পরিবার মামলা সুত্র ও ভুক্তভোগী কিশোরীর জবানবন্দী থেকে জানা যায় , গত ৬-৭ বছর আগে তার বাবা-মার বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর কিশোরীকে রেখে জিবিকার তাগিদে তার মা চলে যান দেশের বাইরে । সেই থেকে সে দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার বামনগড় গ্রামে নানাবাড়িতে থেকে লেখাপড়া করে আসছিলো ।

চলতি বছরের ১৩ ফেব্রুয়ারী পূর্ব-বালিঘাটায় তারা খালা কল্পনা আখতারের বাসায় বেড়াতে গেলে সাগরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ সময় অভিযুক্ত কলেজছাত্র তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে।

তবে মাত্র কদিন পরেই কিশোরী জানতে পারে সাগরের সঙ্গে তার বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়া খালাতো বোনেরও অবৈধ সম্পর্ক ছিল। সেই থেকে সাগরকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে বিভিন্ন রকম অজুহাত দেখায়। এরই এক পর্যায় বিয়ের কথা বলে গত সোমবার তাকে পাঁচবিবিতে ডেকে আনে সাগর। ওই দিন সকালে পাঁচবিবিতে আসার পর সাগরের সঙ্গে বিভিন্নভাবে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে সাগর যোগাযোগ না করায় সে সাগরের পরিবারের সঙ্গে দেখা করে বিষয়টি জানায়।

এতে সাগর ক্ষিপ্ত হয়ে শিক্ষার্থীকে সন্ধ্যায় তুলে নিয়ে গিয়ে বটতলী এলাকার একটি বাগানে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে রাতে তার খালার বাড়িতে এসে বিষয়টি খুলে বললে মঙ্গলবার দুপুরে ওই শিক্ষার্থীকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ বিষয়ে পাঁচবিবি থানা পুলিশের তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাসান রেজা বলেন, খবর পেয়ে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে গেলে ওই কিশোরীকি ভর্তি অবস্থায় দেখতে পাই।

পাঁচবিবি থানা পুলিশের পরিদর্শক বজলার রহমান জানান, বিষয়টি জানতে পেরে তারা হাসপাতালে মেয়েটির খোঁজ খবর নিয়েছেন। তবে এখনও থানায় লিখিত কোনো অভিযোগ হয়নি। অভিযোগ পেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com