৪০ বছর পর কিউবায় প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ

৪০ বছর পর কিউবায় প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ

৪০ বছর পর কিউবায় প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ
৪০ বছর পর কিউবায় প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ

৪০ বছরেরও বেশি সময় পর কিউবায় প্রথম কোনো প্রধানমন্ত্রীকে নিয়োগ দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মিগেল দিয়াজ-কানেল। শনিবার পর্যটনমন্ত্রী ম্যানুয়েল মাররেরো ক্রুজ দেশটির নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী পদটিতে সর্বশেষ ছিলেন কিউবার বিপ্লবী নেতা ফিদেল কাস্ত্রো। ১৯৭৬ সালে তিনি এই পদটি বিলুপ্ত করে কিউবায় প্রেসিডেন্ট নেতৃত্বাধীন সরকারব্যবস্থা চালু করেন।

চলতি বছরের প্রথম দিকে দেশটির নতুন সংবিধানে প্রধানমন্ত্রী পদটি ফিরিয়ে আনা হয়।

বিবিসি জানিয়েছে, বর্তমানে প্রেসিডেন্টের পালন করা কিছু দায়িত্ব পাবেন ৫৬ বছরের মাররেরো।

কিউবার সরকারি অনলাইন সংবাদমাধ্যম কিউবাডিবেট বলেছে,‘প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্টের প্রশাসনিক ডান হাত হিসেবে কাজ করবেন সরকারপ্রধান’।

তবে সমালোচকরা বলেছেন, যেখানে কিউবান কমিউনিস্ট পার্টি ও সামরিক বাহিনী দেশটির দুই সত্যিকারের সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী কর্তৃপক্ষ সেখানে এ ধরনের পদ পরিবর্তন স্রেফ প্রসাধনিক ব্যাপার।

কিউবার সরকারি সংবাদমাধ্যম গ্রানমা জানিয়েছে, মাররেরো হচ্ছেন পর্যটন শিল্পের ‘মূল থেকে উঠে আসা রাজনীতিবিদ’। এ পর্যটন খাতই দেশটির বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের অন্যতম প্রধান উৎস। ২০০০ সালে মাররেরো কিউবার সামরিক বাহিনী পরিচালিত গাভিয়াতা ট্যুরিজম গ্রুপের প্রেসিডেন্ট হন। ট্রাম্প প্রশাসন গাভিয়াতার হোটেলগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে রেখেছে।

প্রয়াত বিপ্লবী নেতা ফিদেল কাস্ত্রো ২০০৪ সালে মাররেরোকে পর্যটনমন্ত্রী করেন। এরপর থেকে দেশটির পর্যটন খাতে ব্যাপক অগ্রগতি লক্ষ্য করা গেছে। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরও মাররেরো পর্যটন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকবেন কি না, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com