সংবাদ শিরোনাম :
নবীগঞ্জে গরু ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে গরু রাখাল খুন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ যুব সমাজ চুনারুঘাটের আহম্মদাবাদ ইউনিয়নজুড়ে জুয়া ও মাদকের ছড়াছড়ি মাধবপুরে মালিকানার জোর দেখিয়ে পথচলায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি!  চুনারুঘাটে শিক্ষা ব্যবস্থায় ধস, ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা লাখাইয়ে ডাকাতদলের সদস্য গ্রেপ্তার শায়েস্তাগঞ্জে পচাঁবাসি খাবার বিক্রির অভিযোগে ফার্দিন মার্দিন রেষ্টুরেন্টকে জরিমানা চুনারুঘাটে ৮ বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার অনিয়মের দায়ে এয়ার লিংক ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্ককে জরিমানা বানিয়াচংয়ে এক নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হবিগঞ্জে অকৃতকার্য বেড়েছে ৩ গুণের বেশি
হবিগঞ্জে ডিআইজি’র ভয় দেখিয়ে হুমকি, আতংকে ছোট ভাই

হবিগঞ্জে ডিআইজি’র ভয় দেখিয়ে হুমকি, আতংকে ছোট ভাই

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ১নং ধর্মঘর ইউনিয়নের দত্তপাড়া গ্রামে প্রভাবশালী তিন ভাইয়ের অত্যাচার ও নির্যাতনের শিকার হয়ে পরিবার নিয়ে আতংকে দিন কাটাচ্ছেন ছোট ভাই আক্তার সোলাইমান ও তার পরিবার। শুধু তাই নয়, মিথ্যা মামলা ও হামলা করে তাকে হয়রানিসহ হুমকি ধামকি দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে মাধবপুর থানায় অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের মৃত হাজী তাজুল ইসলামের পুত্র আক্তার সোলাইমানের সাথে জমি জমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে তার আপন সহোদর নিজামুল ইসলাম আলমগীর, মঞ্জুরুল ইসলাম হুমায়ূন ও তাফাজ্জুল ইসলাম মীর কাশিমের। এ নিয়ে আদালতে মামলা মোকদ্দমাও চলছে।

সম্পত্তির ভাগবাটোয়ারা থেকে উল্লেখিত তিন ভাই তাদের ছোট ভাইকে বঞ্চিত করতে সে সহ তার পরিবারের ওপর হামলাসহ মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করা হচ্ছে।

ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে গত (১৪ মে) শনিবার সকালে স্থানীয় ইউপি সদস্য নাসির উদ্দিন খোকনের সামনে বাড়ির রাস্তার পাশের দুইটি কাঠালের চারা গাছ কেটে ফেলা হয়। পরদিন রবিবার সকালে আদালতের আদেশ অমান্য করে বাড়ির সীমানা প্রাচীর খুটি ভেঙে ফেলে তিন ভাই। এতে সোলেমান ও তার স্ত্রী বাঁধা দিলে ভাই অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা নিজামুল ইসলাম, মঞ্জুরুল ইসলাম ও ডাক্তার তফাজ্জুল ইসলাম তদের হাতে থাকা দা, বল্লমসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সোলেমান ও তার পরিবারের উপর হামলা চালায়।

প্রাণ রক্ষার্থে সোলেমানের পরিবারের লোকজন দ্রæত গেইটের ভেতরে আশ্রয় নিয়ে প্রাণে রক্ষা পায়। উল্লেখিত ঘটনায় মাধবপুর থানায় তিনি অভিযোগ দায়ের করেছেন। কিন্তু তার ভাইয়েরা প্রভাবশালী হওয়ায় কোনো প্রতিকার পাননি।

এছাড়াও তাদের পারিবারিক বিষয়টি নিয়ে ধর্ম ঘরের সাবেক চেয়ারম্যান সামছুল ইসলাম কামাল ও বর্তমান চেয়ারম্যান পারুল আহমদসহ গণমাণ্য ব্যক্তিদের নিয়ে সালিশ বিচারেরও আয়োজন করা হয়। পরবর্তীতে তা অগ্রাহ্য করে পুনরায় তাদের অত্যাচার নির্যাতন বহাল রেখেছে তিন ভাই।

তিনি জানান, ডিআইজির ভয়ভীতি দেখিয়ে তাকে হুমকি প্রদর্শন করা হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে Ground পরিজন নিয়ে চরম আতংক আর নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটাচ্ছেন আক্তার সোলাইমান।

এ বিষয়ে মাধবপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com