লাশ আনতে প্রতি পরিবারের একজন নিউজিল্যান্ডে যেতে পারবেন

লাশ আনতে প্রতি পরিবারের একজন নিউজিল্যান্ডে যেতে পারবেন

লাশ আনতে প্রতি পরিবারের একজন নিউজিল্যান্ডে যেতে পারবেন
লাশ আনতে প্রতি পরিবারের একজন নিউজিল্যান্ডে যেতে পারবেন

কূটনৈতিক প্রতিবেদক : নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদে হামলায় নিহত বাংলাদেশিদের লাশ হস্তান্তরের জন্য পরিবারের একজন সদস্যকে সেখানে নেবে নিউজিল্যান্ড সরকার।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম গণমাধ্যমকে এই তথ্য জানিয়েছেন।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, ওই হামলায় মোট চারজন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন বলে স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটির কাছ থেকে তথ্য পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ড. আবদুস সামাদ ও হোসনে আরা আহমেদের পরিচয় নিউজিল্যান্ডের পুলিশ নিশ্চিত করেছে।

যারা বাংলাদেশ থেকে যাবেন, তারা স্বজনের লাশ নিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন। ময়নাতদন্ত ও পরিচয় শনাক্ত করার কাজ শেষে রোববারই লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর শুরু হবে বলে জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অ’ডুর্ন।

শাহরিয়ার বলেন, নিহত ড. আব্দুস সামাদের পরিবার তাকে নিউজিল্যান্ডে কবর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নিহতের বড় ছেলে বাংলাদেশ থেকে সেখানে যাবে। তবে নিহত হোসনে আরাকে নিউজিল্যান্ডে কবর দেওয়া হবে নাকি লাশ দেশে ফিরিয়ে আনা হবে সে বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

গত শুক্রবার জুমার নামাজের প্রস্তুতির সময় ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে বর্ণবাদী এক যুবকের নৃশংস হামলায় অন্তত ৫০ জন নিহত ও ৪৮ জন আহত হন।

ওই হামলার সময় আল নুর নামের মসজিদটিতে নামাজ পড়তে গিয়ে অল্পের জন্য বেঁচে ফেরেন সফররত বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com