রাত পোহালেই ডিআরইউ’তে ভোট

রাত পোহালেই ডিআরইউ’তে ভোট

http://lokaloy24.com/

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামীকাল মঙ্গলবার।

মঙ্গলবার ( ৩০ নভেম্বর ) সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে এই ভোটগ্রহণ চলবে।

সংগঠনটির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে সোমবার (২৯ নভেম্বর)। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পেশাদার সাংবাদিকদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে ডিআরইউ প্রাঙ্গন। প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা। পোস্টার, ব্যানার, লিফলেটে ছেয়ে গেছে চারিদিক। নানা প্রতিশ্রুতি নিয়ে ভোটারদের দোরগোড়ায় যাচ্ছেন প্রার্থীরা। যোগ্য নেতৃত্ব বেছে নিতে সদস্যদের মধ্যেও উৎসাহ-উদ্দীপনার কমতি নেই।

মোট ২১টি পদের মধ্যে ১৯টিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪১ জন প্রার্থী। আর বাকী দুটির মধ্যে তথ্যপ্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক পদে কামাল মোশারেফ এবং আপ্যায়ন সম্পাদক পদে মুহাম্মদ আখতারুজ্জামান বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয়েছেন।

ডিআরইউ নির্বাচনে শীর্ষ দুই পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১০ জন প্রার্থী। এর মধ্যে সভাপতি পদে ৫ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে ৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

নির্বাচন কমিশন চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কবির আহমেদ খান, নজরুল ইসলাম মিঠু, রিয়াজ চৌধুরী, সাখাওয়াত হোসেন বাদশা, সৈয়দ শুকুর আলী শুভ।

সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জামিউল আহসান সিপু, মো. মঈন উদ্দিন খান, মসিউর রহমান খান, নূরুল ইসলাম হাসিব, তোফাজ্জল হোসেন।

এবারের নির্বাচনে সহ-সভাপতি পদে নির্বাচন করছেন চারজন। তারা হলেন- আবুল বাশার নুরু, আতিকুর রহমান, ওসমান গণি বাবুল, রাশেদুল হক।

দুটি পদে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হওয়ায় সম্পাদকীয় ৯টি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২ জন করে মোট ১৮ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে যুগ্ম সম্পাদক পদে লড়ছেন মঈনুল আহসান ও শাহনাজ শারমীন। অর্থ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এস এম এ কালাম ও শাহ আলম নূর। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আব্দুল্লাহ আল কাফি ও সাইফুল ইসলাম। দপ্তর সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কাওসার আজম ও রফিক রাফি। নারী বিষয়ক সম্পাদক পদে প্রার্থী হলেন জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না ও তাপসী রাবেয়া আঁখি। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদের বিপরীতে প্রার্থী কামাল উদ্দিন সুমন ও এম. উমর ফারুক। ক্রীড়া সম্পাদক পদের বিপরীতে প্রার্থী মাসুদা লিসা ও মো. কবিরুল ইসলাম।

সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নাদিয়া শারমিন ও সায়ীদ আবদুল মালিক। কল্যাণ সম্পাদক পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জাহাঙ্গীর কিরণ ও কামরুজ্জামান বাবলু।

এছাড়া কার্যনির্বাহী সদস্য ৭টি পদে এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৯ জন প্রার্থী। তালিকা অনুযায়ী তারা হলেন হাসান জাবেদ, মাহমুদুল হাসান, মহসিন বেপারী, মো. আল-আমিন, মো. তানভীর আহমেদ (তানভীর আহমেদ), মোহাম্মদ ছলিম উল্লাহ (মেজবাহ), এসকে রেজা পারভেজ, সোলাইমান সালমান, সুশান্ত কুমার সাহা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com