ভালোবেসে বিপত্তি

ভালোবেসে বিপত্তি
ভালোবেসে বিপত্তি

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের প্রশান্ত মহাসাগরের কোলঘেঁষা শহর সান ডিয়াগো। এখানেই বিভিন্ন টানাপোড়েনের মধ্যে দিন পার করেন কার্লা। তবে শত অভাবের মধ্যেও একটি প্রাণীর প্রতি প্রগাঢ় মমতা রয়েছে তার। সেটি হলো ইঁদুর!

কিন্তু এই ইঁদুরের প্রতি মমতা তার জন্য এখন হীতে বিপরীত হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ তার পালিত ইঁদুরের কারণে সান ডিয়োগোর সার্কেল কে’র বাসিন্দাদের নাজেহাল অবস্থা। শুরুতে কার্লার জ্যাকব ও রিচেল নামের দুটি ইঁদুর ছিল। এরপর ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে ঘর ছাড়েন কার্লা। ঠাঁই নেন একটি ভ্যানে। সঙ্গে নিয়ে যান ইঁদুর দুটিকে। বিপত্তি শুরু এখান থেকেই।

কিছুদিনের মধ্যে একটি ইঁদুর বাচ্চা দেয়। কার্লা বাচ্চাগুলোকে ফেলে না দিয়ে পালতে শুরু করেন। এরপর সময়ের সাথে সাথে ইঁদুরের সংখ্যা বাড়তে থাকে। দুটি থেকে বেড়ে ইঁদুরের সংখ্যা দাঁড়ায় তিনশ। প্রথমদিকে এগুলো কার্লার ভ্যানেই থাকত। তাণ্ডব চালাত সারা ভ্যানে। তবে শত উৎপাতেও কার্লা ইঁদুরগুলোকে নিয়মিত খাবার ও পানি সরবরাহ করেছে। বিপত্তি শুরু হয় ইঁদুরগুলো যখন ভ্যান ছেড়ে শহরময় ছড়িয়ে পড়ে। ইঁদুরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা। বিশেষ করে কার্লা যে দোকানে চাকরি করে সেখানেও হানা দেয় ইঁদুর।

অভিযোগের পর অভিযোগ জমা হয় সান ডিয়াগো হিউম্যান সোসাইটিতে। অভিযোগের ভিত্তিতে তড়িৎ পদক্ষেপ নেয় কর্তৃপক্ষ। তারা ভ্যানের গর্ভবতী ইদুরগুলোকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নেয়ার ব্যবস্থা করে। আর কিছু ইঁদুর জোড়া প্রতি পাঁচ মার্কিন ডলারে বিক্রির ব্যবস্থা করে।

অন্যদিকে প্রাণী অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠনগুলো কার্লার প্রাণীর প্রতি ভালোবাসাকে সাধুবাদ জানিয়েছে। তার ঋণগ্রস্ত অবস্থা কাটানোর জন্য অনলাইনে ‘গো ফান্ড মি’ নামে একটি ইভেন্ট চালু করেছে। সেখানে ইতিমধ্যে পাঁচ হাজার মার্কিন ডলার জমা পড়েছে। এছাড়া স্থানীয় এক বাসিন্দা কার্লাকে একটি গাড়ি প্রদান করেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com