বাগেরহাটে মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

বাগেরহাটে মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

বাগেরহাটে মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা
বাগেরহাটে মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

বাগেরহাট সংবাদদাতা : বাগেরহাটে শরণখোলায় পঞ্চম শ্রেণির এক মাদ্রসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদরাসা সুপারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার রাতে নির্যাতিত ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ইলিয়াস হোসেন (৪৫) নামের ওই সুপারের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মঙ্গলবার দুপুরে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই শিক্ষার্থীকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে শরণখোলা থানা পুলিশ।

অভিযুক্ত ইলিয়াস হোসেন শরণখোলা উপজেলার খোন্তাকাটা রাফেজিয়া ইবতেদায়ী মাদ্রাসার সুপার। তিনি একই উপজেলার পূর্ব রাজাপুর গ্রামের গফফার জোমাদ্দারের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৮ আগস্ট পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া ওই ছাত্রীকে মাদ্রাসার লাইব্রেরিতে নিয়ে ধর্ষণ করে ইলিয়াস হোসেন। বিষয়টি মা-বাবাকে জানাতে নিষেধ করে ভয়ভীতিও দেখান। পরে রক্তক্ষরণ হলে সিড়ি থেকে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছে বলে মেয়েটির বাবা-মাকে জানান ইলিয়াস হোসেন।

শিক্ষার্থীকে সুস্থ্য করতে নিজেই ঝাড়ফুঁক ও পানি পড়া দেন তিনি। তাতে সুস্থ না হওয়ায় সুপারের পরামর্শে মোরেলগঞ্জ উপজেলার একটি ক্লিনিকে মেয়েকে ভর্তি করেন তার বাবা। সেখানে চিকিৎসকরা রক্তক্ষরণের কারণ ভিন্ন বলে জানান। এরপর শিশুটি তার বাবা-মাকে ঘটনা খুলে বলে। বিষয়টি জানজানি হলে সুপার ইলিয়াস মেয়েটির বাবা-মায়ের পা ধরে ক্ষমা চান। পরে গা ঢাকা দেন।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলিপ কুমার সরকার বলেন, ‘ধর্ষণের ঘটনায় মেয়েটির বাবা একটি মামলা দায়ের করেছেন। আমরা শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছি। অভিযুক্ত মাদ্রাসা সুপার ইলিয়াস হোসেনকে আটক করার জন্য পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com