সংবাদ শিরোনাম :
হবিগঞ্জে বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন হবিগঞ্জ শহরে মুন হাসপাতাল এবং চিকিৎসককে জরিমানা ঠাকুরগাঁওয়ে ধনীর মেয়েকে বিয়ে করার দায়ে গরিবের ছেলেকে গাছে বেধে নির্যাতন পর্তুগাল বিএনপির সভাপতি মাফিয়া ওলিউর দু’পুত্র ও সহোদর সহ পর্তুগাল পুলিশের খাঁচায় বন্দী হবিগঞ্জ বাহুবল উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্তে বিভাগীয় কমিশনার ইসলামে দান-সদকার সওয়াব অপরিসীম ৬ ঘণ্টা নয়, ৪ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে সিএনজি ফিলিং স্টেশন করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে মিরাজ জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিতে শুক্রবার ঢাকা ছাড়ছেন প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরে আরটিপিসিআর ল্যাব বসানোর অনুমোদন ৭ প্রতিষ্ঠানকে
বাংলাদেশে রেলপথে উন্নয়নের কাজ ব্যাপকভাবে চলছে

বাংলাদেশে রেলপথে উন্নয়নের কাজ ব্যাপকভাবে চলছে

মোঃ মজিবর রহমান শেখ: দিনে দিনে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। মানুষের পথযাত্রাকে আরও সহজ করে তুলছে রেলপথ গুলো। বাংলাদেশ বিগত কয়েক বছরের তুলনায় বর্তমানে রেলপথের দিক থেকে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশ সরকার অত্যাধুনিক প্রযুক্তিগতভাবে নতুন দ্রুতগামী ট্রেন, স্টেশন গুলোর বর্ধিতকরণ ও উন্নয়ন, যাত্রী সেবা এগুলো বিষয়ের উপর খুব ভালো নজর দিচ্ছে। অন্যদিকে আমাদের খুব কাছের দেশ ভারতের রেলের পরিকাঠামো তার কথা যদি ভাবা যায় তাহলে অনেক উন্নত মানের ও বৃহত্তম এবং সম্পূর্ণ স্বাবলম্বী। বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারত নিজের তৈরি এবং এর সাথে জড়িত অন্য সামগ্রী বিশ্বের অনেক দেশে রপ্তানি করছে। ‌ এই সুযোগটা বাংলাদেশকেও নেওয়া উচিত।
যেহেতু ভারতের সাথে বাংলাদেশের পরিবহন ব্যবস্থা সহজগম্য সেই ক্ষেত্রে যদি গ্লোবাল টেন্ডার এর দ্বারা ভারতকে বাংলাদেশ রেলের পরিকাঠামো উন্নত মানের ক্ষেত্রে বিনিয়োগের সুযোগ দেওয়া হয় তাহলে বাংলাদেশ অনেক উপকৃত এবং লাভবান হবে।
এতে বিনিয়োগের ব্যয় যেমন মেশিনারি, নির্মাণ দ্রব্যমূল্য, পরিবহন এবং শ্রমিক ইত্যাদি অন্য দেশের তুলনায় অনেকটাই কম হবে। এক্ষেত্রে ভারতকে অগ্রাধিকার দিলে আমাদের দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কটা ভালো হবে এবং বাংলাদেশের রেল বিশ্বের অন্যতম রেলওয়ে হিসেবে পরিগণিত হবে।
এই বিষয়গুলোর প্রতি আমাদের বর্তমান সরকার গভীরভাবে আত্মচিন্তা করা উচিত। বিগত কিছু বছরের রেকর্ড যদি তুলে ধরি বাংলাদেশের রেল ব্যবস্থাকে উন্নতি করার জন্য চীন দেশের উপরে নির্ভরশীল হতে চলেছে। যদিও বিনিয়োগের সামগ্রীক খরচ যেমন যন্ত্রপাতি ক্রয়, শ্রমিক, পরিবহন, নির্মাণ ইত্যাদি অতি ব্যয়বহুল এবং অপর্যাপ্ত। এতে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থায় একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে।
এদিকে ভারতের প্রচেষ্টায় আগরতলা (ভারত) এবং আখাউড়া (বাংলাদেশ) এর মাঝখানে ভারতীয় ৯৮০ কোটি টাকার লগ্নিতে রেলওয়ে প্রজেক্ট এবছর ডিসেম্বরে সম্পূর্ণ হতে চলেছে। অন্যদিকে চীন দেশের সাথে বাংলাদেশের রেল অবকাঠামোর ক্ষেত্রে কিছু ফাটল ধরেছে। চীন দেশের লগ্নিতে ৩টি প্রকল্পের খরচে লাগাম দিতে বর্তমান বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশ জারি করেছে । তথ্য আরও জানায় চালু হতে যাওয়া দ্রুতগামী আন্তঃনগর ট্রেনের মধ্যে রয়েছে মহানগর এক্সপ্রেস এগারসিন্দুর প্রভাতী, এগারসিন্দুর গোধূলি, ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস, জামালপুর এক্সপ্রেস, চট্রলা এক্সপ্রেস করতোয়া এক্সপ্রেস, কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস সিল্কসিটি এক্সপ্রেস দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ধুমকেতু এক্সপ্রেস ‌। এ ছাড়াও অনেক ধরনের লোকাল কমিউটার ট্রেন চালু হতে যাচ্ছে। এদিকে উত্তরবঙ্গে রেলপথের উন্নয়ন সম্পর্কে দিনাজপুর সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী প্রদীপ কুমার সরকারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, উত্তরবঙ্গে বেশ কয়েকটি উন্নয়নমূলক প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছে এদের মধ্যে ঠাকুরগাঁও জেলায় লুপ লাইন ও আইল্যান্ড প্ল্যাটফর্ম, পঞ্চগড়ে ও বিরলে অ্যাপ্রচ রোড, দিনাজপুরে আইল্যান্ড প্ল্যাটফর্ম বর্ধিতকরণ, বেনাপোলে লুপ লাইন।
ঠাকুরগাঁও,পঞ্চগড়, বিরল, দিনাজপুর ও বেনাপোলে প্রজেক্টগুলোর কাজ খুব শীঘ্রই শুরু হবে বলে জানান, তিনি আরো বলেন, রেললাইন মমেরা ট্রেনের মেরামত ও নতুন প্রজেক্ট এসব কাজগুলো সম্পূর্ণভাবে আমাদের দেশীয় কোম্পানি পরিচালনা করেন। এদের মধ্যে তিনি ক্যাপসেল কোম্পানি ও সোহানা এন্টারপ্রাইজ এ দুটি কোম্পানির নাম বলেন ।
বাংলাদেশ রেল সূত্র জানায়, প্রতিটি ট্রেনের শতভাগ টিকিট বিক্রি করা হবে অর্ধেক ক্রিকেট স্টেশনের কাউন্টারে এবং বাকি অর্ধেক রেল সেবা অ্যাপস ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিক্রয় করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com