বাংলাদেশের রেল খাতে বিনিয়োগে স্পেনের আগ্রহ

বাংলাদেশের রেল খাতে বিনিয়োগে স্পেনের আগ্রহ

বাংলাদেশ রেলওয়েতে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে স্পেন। এজন্য একটি এমওইউ স্বাক্ষরেরও প্রস্তাব করেছেন দেশটির (ট্রান্সপোর্ট মোবিলিটি ও আরবান এজেন্ডাবিষয়ক) পরিবহনমন্ত্রী রাকেল সানচেজ খিমেনেজ। গত মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে স্পেনের পাসেও দে লা কাসতেয়ানায় অবস্থিত ট্রান্সপোর্ট মোবিলিটি ও আরবান এজেন্ডা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে দেশটির ট্রান্সপোর্ট মোবিলিটি ও আরবান এজেন্ডা বিষয়ক পরিবহনমন্ত্রী রাকেল সানচেজ খিমেনেজের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। দুই দেশের মন্ত্রী পর্যায়ের প্রথমবার এ দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকের শুরুতেই স্পেনের মন্ত্রী বাংলাদেশের রেলমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এ বৈঠকে অংশ নেওয়ার জন্য। রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি রেল খাতে নেওয়া বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। এছাড়া তিনি স্পেনকে বাংলাদেশ রেলওয়েতে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। জবাবে পরিবহনমন্ত্রী রাকেল সানচেজ খিমেনেজ বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক অগ্রগতির ভূয়ষী প্রশংসা করেন এবং বাংলাদেশের রেল সেক্টর সম্পর্কে আরও জানার আগ্রহ প্রকাশ করেন। নুরুল ইসলাম সুজন বাংলাদেশের রেল সেক্টর উন্নয়নে নেয়া মহাপরিকল্পনার বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন। স্পেনের (ট্রান্সপোর্ট) পরিবহনমন্ত্রী রাকেল সানচেজ বাংলাদেশের রেল সেক্টরে সহযোগিতার বিষয়ে তাৎক্ষণিক আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং এটি শুরু করার জন্য একটি এমওইউ সাক্ষরেরও প্রস্তাব করেন। স্পেনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সিলার রেদোয়ান আহমেদ এ তথ্য জানান। বৈঠকে ঢাকা-পায়রা বন্দর পর্যন্ত ২৬৪ কিলোমিটার রেলপথ নির্মানে বিনিয়োগ, বেশকিছু ভবিষ্যৎ প্রকল্প, স্পেনের বিশেষায়িত বিনিয়োগ স্কীম (ফিয়েম লোন)-সহ দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। বৈঠকে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনের নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন রেল সচিব মো. সেলিম রেজা, স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ এনডিসি। স্পেনের মন্ত্রী রাকেল সানচেজ খিমেনেজের নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন মিনিস্টারস কেবিনেটের ডাইরেক্টর রিকার্ডো মার ও ইন্টারন্যাশনাল কেবিনেটের ডেপুটি ডাhttp://lokaloy24.com/w

বাংলাদেশ রেলওয়েতে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে স্পেন। এজন্য একটি এমওইউ স্বাক্ষরেরও প্রস্তাব করেছেন দেশটির (ট্রান্সপোর্ট মোবিলিটি ও আরবান এজেন্ডাবিষয়ক) পরিবহনমন্ত্রী রাকেল সানচেজ খিমেনেজ।

গত মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে স্পেনের পাসেও দে লা কাসতেয়ানায় অবস্থিত ট্রান্সপোর্ট মোবিলিটি ও আরবান এজেন্ডা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে দেশটির ট্রান্সপোর্ট মোবিলিটি ও আরবান এজেন্ডা বিষয়ক পরিবহনমন্ত্রী রাকেল সানচেজ খিমেনেজের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

দুই দেশের মন্ত্রী পর্যায়ের প্রথমবার এ দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকের শুরুতেই স্পেনের মন্ত্রী বাংলাদেশের রেলমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এ বৈঠকে অংশ নেওয়ার জন্য। রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি রেল খাতে নেওয়া বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। এছাড়া তিনি স্পেনকে বাংলাদেশ রেলওয়েতে বিনিয়োগের আহ্বান জানান।

জবাবে পরিবহনমন্ত্রী রাকেল সানচেজ খিমেনেজ বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক অগ্রগতির ভূয়ষী প্রশংসা করেন এবং বাংলাদেশের রেল সেক্টর সম্পর্কে আরও জানার আগ্রহ প্রকাশ করেন। নুরুল ইসলাম সুজন বাংলাদেশের রেল সেক্টর উন্নয়নে নেয়া মহাপরিকল্পনার বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন। স্পেনের (ট্রান্সপোর্ট) পরিবহনমন্ত্রী রাকেল সানচেজ বাংলাদেশের রেল সেক্টরে সহযোগিতার বিষয়ে তাৎক্ষণিক আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং এটি শুরু করার জন্য একটি এমওইউ সাক্ষরেরও প্রস্তাব করেন। স্পেনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সিলার রেদোয়ান আহমেদ এ তথ্য জানান।

বৈঠকে ঢাকা-পায়রা বন্দর পর্যন্ত ২৬৪ কিলোমিটার রেলপথ নির্মানে বিনিয়োগ, বেশকিছু ভবিষ্যৎ প্রকল্প, স্পেনের বিশেষায়িত বিনিয়োগ স্কীম (ফিয়েম লোন)-সহ দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনের নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন রেল সচিব মো. সেলিম রেজা, স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ এনডিসি। স্পেনের মন্ত্রী রাকেল সানচেজ খিমেনেজের নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন মিনিস্টারস কেবিনেটের ডাইরেক্টর রিকার্ডো মার ও ইন্টারন্যাশনাল কেবিনেটের ডেপুটি ডাইরেক্টর ডি বোরখা কোনদাদো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com