জুমার খুতবায় জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

জুমার খুতবায় জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

জুমার খুতবায় জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
জুমার খুতবায় জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সচিবালয় প্রতিবেদক : জুমার খুতবায় জঙ্গিদের বিরুদ্ধে কথা বলতে সারা দেশের মসজিদের ইমামদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী রুটে নতুন বিরতিহীন ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ ট্রেনের উদ্বোধনের সময় তিনি এ আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ইসলাম ধর্ম নিরীহ মানুষ হত্যাকে সমর্থন করে না। কাউকে হত্যা করার মাধ্যমে কারো বিচারের অধিকার ইসলাম কাউকে দেয়নি। বিচার করবেন রাব্বুল আল আমিন। জুমার খুতবায় আপনারা জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রচার করবেন। আমরা শান্তি চাই। দেশে শান্তি থাকলে অবশ্যই উন্নয়ন হবে।’

তিনি বলেন, ‘জঙ্গিবাদ শুধু বাংলাদেশে নয়; সারা বিশ্বে জঙ্গিবাদীরা তাদের জঘন্য কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। কয়েক দিন আগে নিউজিল্যান্ডে মসজিদে প্রবেশ করে তারা মুসল্লিদের হত্যা করেছে। শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় কত মানুষের প্রাণ গেল।’

ফুপাতো ভাই শেখ সেলিমের নাতির মৃত্যুর প্রসঙ্গ তুলে শেখ হাসিনা বলেন, ‘সন্ত্রাসের কারণে আমরা আট বছরের শিশু জায়ান চৌধুরীকে হারিয়েছি। আমার পরিবারের সবাইকে ১৫ আগস্টে হারিয়েছি। আমি চাই না, আর কোনো সন্তানের এভাবে মৃত্যু হোক।’

তিনি বলেন, ‘যারা এগুলো করে তারা ঘৃণা ছাড়া কিছুই পায় না। জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ হলো মানবতার বিরোধী। জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কথা বলতে হবে। আমি আশা করি, ইমামরা মসজিদে খুতবার আগে এ ব্যাপারে আলোচনা করবেন। ইসলাম যে শান্তির ধর্ম সে বিষয়ে কথা বলবেন।’

জায়ানের জন্য আগামী শুক্রবার প্রত্যেক মসজিদে দোয়া করার জন্যও বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানের শুরুতে রেলের ওপর সংক্ষিপ্ত তথ্য উপস্থাপন করেন রেল মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জল হোসেন। রাজশাহী প্রান্তে বক্তব্য দেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন ও  রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

প্রধানমন্ত্রী দেশকে এগিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে রেলপথে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত করার চিন্তার কথা জানান। তিনি বলেন, ‘রেলের যোগাযোগটা উন্নত করে দিতে চাই। এর সার্বিক উন্নয়নে ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমরা চাই, দেশটা এগিয়ে যাক। সবকিছুর সঙ্গে রেল সাশ্রয়ীও বটে।’

শেখ হাসিনা বলেন, রাজশাহীর উন্নয়নে আমরা হাত দিয়েছি। পুরো উত্তরবঙ্গেই আমরা উন্নয়ন করতে চাই। উত্তরবঙ্গ এখন আর মঙ্গাপীড়িত নয়। আমরা উত্তরবঙ্গকে মঙ্গামুক্ত করেছি। রাজশাহীবাসীকে ধন্যবাদ জানাই। এখন আমরা যে ১০০টি শিল্পাঞ্চল করছি সেগুলোর মধ্যে বেশকিছু থাকবে উত্তরাঞ্চলে।’

বলনতা এক্সপ্রেসের উদ্বোধন ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে বনলতা এক্সপ্রেসের উদ্বোধন ঘোষণা করছি। এখন থেকে সব মিলিয়ে ৫ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা থেকে রাজশাহী পৌঁছে যাওয়া যাবে।’

সামনে ঈদ এবং জ্যৈষ্ঠ মাসে আম পাকার ব্যাপারটি মাথায় রেখে এই ট্রেনের উদ্বোধন করা হলো বলে জানান তিনি।

বিশ্বব্যাংকের প্রসঙ্গ তুলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বব্যাংক এখন প্রস্তাব দিচ্ছে আলাদা একটা সেতু করার। তারা যমুনা নদীর ওপর সেতু করে দিতে চায়। দেশটা আমাদের। আমরা যতটা ভালো বুঝব অন্য কেউ বাইরে থেকে এসে আমাদের ভালো বুঝবে না।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com