কুমিল্লায় অনুদানের টাকার ভাগ নিয়ে শিক্ষককে মারধর বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

কুমিল্লায় অনুদানের টাকার ভাগ নিয়ে শিক্ষককে মারধর বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

কুমিল্লায় অনুদানের টাকার ভাগ নিয়ে শিক্ষককে মারধর বিচারের দাবিতে মানববন্ধন
কুমিল্লায় অনুদানের টাকার ভাগ নিয়ে শিক্ষককে মারধর বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার : কুমিল্লা জেলা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ধোড়কড়া উচ্চবিদ্যালয়ের সহ:প্রধান শিক্ষক আঃ মান্নানকে উপজেলার ৯ নং কনকাপৈত ইউনিয়ন পরিষদের ক্ষমতাসীন দলের চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল ইউনিয়ন কার্যালয়ে মোবাইল ফোনে ডেকে এনে দলীয় সাঙ্গ-পাঙ্গ দিয়ে মারধর করে। ঘটনাটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে এলাকার সুশীল সমাজ ফুঁসে উঠে। গতকাল ২৮ জুন বৃহ¯প্রতিবার সকাল ১০ ঘটিকায় ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে উক্ত ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবীতে এক মানববন্ধন করে। চৌদ্দগ্রাম ঢাকায় অবস্থিত সুশীল সমাজ এই মানবন্ধনে অংশগ্রহণ করে। ঘটনার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, মাননীয় রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক লাউলাইশ ক্বিরাতুল কোরআন ইসলামিয়া মাদ্রাসার জন্য ২৫ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছিলেন। চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল আব্দুল মান্নান সাহেবের কাছে ঐ টাকা চেয়ে ছিলেন। শিক্ষক আব্দুল মান্নান বলেছেন, টাকা মাদ্রাসার একাউন্টে জমা দিয়েছেন। শিক্ষক যদি টাকা জমা দিয়ে থাকেন তাহলে তার প্রমাণ শিক্ষককের কাছে অবশ্য আছে। এলাকাবাসীর ভাষ্য, প্রমাণ চাওয়ার অধিকার চেয়ারম্যনের আছে। মারধর করার অধিকার, ক্ষমতা চেয়ারম্যানের নাই। একজন শিক্ষক সমাজের সর্বোচ্চ সম্মানিত ব্যক্তি। শিক্ষককে সবাই স্যার সম্বোধন করে। চেয়ারম্যানকে স্যার সম্বোধন কেউ করে না। এখানে প্রতিয়মান হয় যে, শিক্ষক সমাজের, রাষ্ট্রের সম্মানিত ব্যক্তি। জাতি গড়ার কারিগর শিক্ষক। অনুদানের টাকা রাষ্ট্রীয় টাকা হলে চেয়ারম্যান আইনের আওতায় আনার ক্ষমতা রয়েছে। মন্ত্রীর ব্যক্তিগত টাকা হলে চেয়ারম্যানের হিসাব চাওয়ার কোনো অধিকারই থাকে না। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মানবাধিকার আন্দোলনের চেয়ারম্যান মহিবুল্লাহ, বাংলাদেশ শিক্ষক সমাজের নেতা রুহুল আমিন এবং অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উক্ত ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন। এবং সুষ্ঠু বিচারের দাবী করেন।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com