হামাগুঁড়ি দিয়ে প্রেমিকার বাড়িতে এসেই প্রাণ গেল প্রেমিকের!

হামাগুঁড়ি দিয়ে প্রেমিকার বাড়িতে এসেই প্রাণ গেল প্রেমিকের!

হামাগুঁড়ি দিয়ে প্রেমিকার বাড়িতে এসেই প্রাণ গেল প্রেমিকের!
হামাগুঁড়ি দিয়ে প্রেমিকার বাড়িতে এসেই প্রাণ গেল প্রেমিকের!

কক্সবাজার- দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক থাকার পরেও মা-বাবাসহ পরিবারের সদস্যরা মেয়েকে বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় প্রেমিকার বাড়িতে এসে বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন মোহাম্মদ মারুফ (২৬) নামে এক প্রেমিক।

গতকাল রোববার সকালে চাঞ্চল্যকর এমন ঘটনা ঘটেছে কক্সবাজারের  চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের করমুহুরী পাড়ার কবির আহমদের বাড়িতে।

নিহত মারুফ ফেনী জেলার সোনাগাজী থানার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের অলুয়া বাজারের সালেহ আহমদের ছেলে। তিনি পেশায় ট্রাকের হেলপার ছিলেন।

জানা যায়, রোববার সকালে শেষবারের মতো প্রেমিকার বাড়িতে এসে কোন সদুত্তর না পেয়ে কাছের জঙ্গলে গিয়ে বিষপান করেন ওই প্রেমিক। এরপর বিষে আক্রান্ত হয়ে হামাগুঁড়ি দিয়ে প্রেমিকার বাড়িতে আসেন।

এ সময় তাকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে এদিন দুপুরে ওই প্রেমিকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ।

হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সমীর চন্দ্র সরকার জানান, হারবাং করমুহুরী পাড়ার কবির আহমদের ছেলে আলমগীর পেশায় ট্রাকচালক। তার সাথে হেলপার হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন ফেনীর সোনাগাজীর মো. মারুফ। এ সুবাদে মারুফ প্রতিনিয়ত চালক আলমগীরের বাড়িতে যাওয়া-আসা করতেন। সেই সূত্রে আলমগীরের ছোট বোনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন মারুফ।

একপর্যায়ে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হয় পরিবারের কাছে। কিন্তু মেয়েটি অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় বিয়েতে কেউ রাজি হননি। তাই মারুফ এখানে এসে বিষপান করে নিজের জীবন নাশ করেছেন বলে তারা জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ওসি মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘খবর পেয়ে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কঙবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com