হবিগঞ্জে ভারি বর্ষণে জলাবদ্ধতা

হবিগঞ্জে ভারি বর্ষণে জলাবদ্ধতা

হবিগঞ্জে ভারি বর্ষণে জলাবদ্ধতা
হবিগঞ্জে ভারি বর্ষণে জলাবদ্ধতা

নিজস্ব প্রতিনিধি: মাত্র কয়েক ঘণ্টার ভারি বর্ষণে হবিগঞ্জ জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন পৌরবাসী।

শুক্রবার (২৪ মে) ভোররাতে তিন ঘণ্টার টানা বৃষ্টিতে শহরের বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা ও এলাকার রাস্তা-ঘাট কর্দমাক্ত হয়ে ওঠেছে। এছাড়াও শহরের নিম্নাঞ্চলের অধিকাংশ মানুষ পানিবন্দি।

আজ শুক্রবার হওয়ায় স্কুল-কলেজ ও বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ভোগান্তির পরিমাণ কিছুটা কম হয়েছে।

বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, শহরের শায়েস্তানগর, ইনাতাবাদ, চৌধুরীবাজার, সার্কিট হাউস রোড, নোয়াহাটি, পুলিশ সুপারের বাস ভবন, বগলবাজার, উত্তর শ্যামলী, নোয়াবাদ, মোহনপুর, শ্যামলী, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও বাস ভবন, পুরাতন হাসপাতাল সড়ক, কালিগাছ তলাসহ বিভিন্ন এলাকায় পানি প্রবেশ করে আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে।

এসব এলাকা দিয়ে পথচারীদের হাঁটু পানি ভেঙে চলাচল করতে হয়েছে। পঁচা পানি দিয়ে চলার কারণে চর্মসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাড়ছে।

শহরের চৌধুরীবাজার এলাকার বাসিন্দা নাজমুল হক জানান, বৃষ্টিতে চৌধুরীবাজার এলাকায় ড্রেন ডুবে রাস্তায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এতে তাদের হাঁটু পানি ভেঙে চলাচল করতে হচ্ছে। তিনি বলেন, এখানে নিয়মিত ড্রেন পরিষ্কাসহ পরিকল্পিত উদ্যোগ নিলে জলাবদ্ধতা থাকবে না।

পৌরবাসীর অভিযোগ, পানিনিষ্কাশনের সুব্যবস্থা না থাকায় একটু বৃষ্টি হলেই শহরে জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। বছরের পর বছর পৌরবাসী জলাবদ্ধতার সাথে যুদ্ধ করে আসলেও সমস্যা সমাধানে উদাসিন পৌর কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) হবিগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল জানান, শহরে পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা নেই। ড্রেনগুলো ময়লা আবর্জনায় ভর্তি। শুধু তাই নয়, শহরের পানি বের হওয়ার খোয়াই নদী, রেল লাইন সড়কের খাল দখল হয়ে গেছে। যে কারণে জলাবদ্ধতার শিকার হয়ে সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে।

তিনি বলেন, জলাবদ্ধতা নিরসন করতে হলে খোয়াই নদীসহ পানি চলাচলের খালগুলো দখলমুক্ত করতে হবে। পাশাপাশি ড্রেনগুলো নিয়মিত পরিষ্কার রাখতে হবে

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com