স্ত্রীকে ছাদে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা

স্ত্রীকে ছাদে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা

http://lokaloy24.com/

গাজীপুর মহানগরীর তারগাছ এলাকায় স্ত্রীকে গলা কেটে খুন কারার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাত ৮টার দিকে তারগাছ মেম্বারবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে স্বামী সুজন পলাতক রয়েছে।

লাশ উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। নিহত জুয়েনা (২১) সুনামগঞ্জের দোয়ারা বাজার থানার সুরিগাঁও গ্রামের রাকিব আলীর মেয়ে। জুয়েনার স্বামী সুজনের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহে।
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) গাছা থানার ওসি মো. ইসমাইল হোসেন জানান, মৃত জুয়েনা স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় হেলপার পদে চাকরি করতেন। তিন বছর আগে ময়মনসিংহ জেলার বাসিন্দা সুজনের সাথে বিয়ে হয় জুয়েনার। বিয়ের পর জীবিকার তাগিদে তারা সপরিবারে চলে আসেন গাজীপুরে। সুজন পেশায় রড মিস্ত্রী। প্রয়োজনের তাগিদে সুজন প্রায়ই বিভিন্ন স্থানে থাকতেন। অন্যত্র রাত্রিযাপন নিয়ে তাদের মধ্যে কলহ লেগেই থাকতো।

জুয়েনার বাবা রাকিব আলী বলেন, শুক্রবার রাত আটটার দিকে স্ত্রী জুয়েনাকে ভাড়া বাসার ছাঁদে নিয়ে যান সুজন। তার কিছু সময় ডাক-চিৎকার শুনতে পেয়ে পরিবারের লোকজন ছাদে গিয়ে জুয়েনাকে গলাকাটা অবস্থায় দেখতে পায়। এসময় কিছু বুঝে ওঠার আগেই সুজন ছাঁদ থেকে পালিয়ে যায়। পরে তারা জুয়েনাকে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গাছা জোনের সহকারী কমিশনার আহসান হক জানান, পারিবারিক কলহের জেরে বাড়ির ছাঁদে নিয়ে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকে স্বামী সুজন পলাতক রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পলাতক সুজনকে গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com