সংবাদ শিরোনাম :
‘হাওয়া’ ছবিতে বন্য প্রাণী আইন লঙ্ঘিত হয়েছে, দাবি বন্য প্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের আগামীতে সিলেট-নিউইয়র্ক সরাসরি ফ্লাইট: বিমান প্রতিমন্ত্রী কাতার বিশ্বকাপ একদিন এগিয়ে আনলো ফিফা ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত সমুদ্রবন্দরে, বৃষ্টির পূর্বাভাস শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাপ্তাহিক ছুটি বাড়ানোর বিষয়ে ভাবছে সরকার : শিক্ষামন্ত্রী অটোরিকশা থেকে লাফ দিয়ে পড়ে মারা গেলেন শায়েস্তাগঞ্জে স্কুল শিক্ষিকা সুপ্তা বৈশ্বিক মন্দায়ও অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশ ভালো আছে : সিলেটে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পদ্মা সেতু হয়ে টুঙ্গিপাড়ায় গেলেন প্রধানমন্ত্রী নবীগঞ্জে গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক বিড়ম্বনায় গ্রাহকরা মাকে খুন করে লাশের পাশেই রাত কাটালেন ছেলে
যুবলীগের দায়িত্ব পেলে উপাচার্য পদ ছেড়ে দেব: জবি ভিসি

যুবলীগের দায়িত্ব পেলে উপাচার্য পদ ছেড়ে দেব: জবি ভিসি

যুবলীগের দায়িত্ব পেলে উপাচার্য পদ ছেড়ে দেব: জবি ভিসি
যুবলীগের দায়িত্ব পেলে উপাচার্য পদ ছেড়ে দেব: জবি ভিসি

ঢাকা- যুবলীগের দায়িত্ব পেলে উপাচার্যশিপ ছেড়ে দিতেও রাজি আছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান।

অধ্যাপক মীজানুর রহমান যুবলীগের বর্তমান কমিটির প্রথম প্রেসিডিয়াম সদস্য। তবে তিনি জানিয়েছেন, ভিসি হওয়ার পর তিনি যুবলীগের কোনো বৈঠকে যাননি। যুবলীগের দায়িত্ব নিতে নিজের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন তিনি। এ জন্য তিনি ভিসির পদ ছাড়তেও রাজি আছেন।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় বেসরকারি যমুনা টেলিভিশনের এক টকশোতে তার এই আগ্রহের কথা জানান ভিসি। শুক্রবার দুপুরে নিজের ফেসবুক পেজে ওই টকশো’র ভিডিওটি শেয়ার করার পরই তা ভাইরাল হয়।

টকশোতে ড. মীজানুর রহমান বলেন, ‘আমাকে যদি বলা হয়, আপনি যুবলীগের দায়িত্ব নিতে পারবেন কি না? তবে আমি সঙ্গে সঙ্গে উপাচার্য বা চাকরি ছেড়ে দেব এবং যুবলীগের দায়িত্ব নেব।’

ভিসি আরো বলেন, ‘আমি উপাচার্য হওয়ার পর আর কোনো (যুবলীগের) মিটিংয়ে যাই না। তবে যদি আমাকে এখনো বলা হয় যুবলীগের দায়িত্ব নিতে হবে, আমি ভাইস চ্যান্সেলরের পদ ছেড়েই দায়িত্ব নেব। কারণ, এটা এতো ভালোবাসার একটি সংগঠন, আমি উপাচার্যশিপ ছেড়ে দিতে রাজি আছি।’

ড. মীজানুর রহমান ২০১৩ সালের ২০ মার্চ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হিসেবে যোগ দেন। এর আগে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ পদে ছিলেন।

সম্প্রতি যুবলীগের বিভিন্ন নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসা ও টেন্ডারবাজির অভিযোগ ওঠে। আর এ নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযানও চালায়। যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটসহ একাধিক নেতা গ্রেপ্তার হন। এর পর থেকে সংগঠনটির চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর নামও উঠে আসে। এরই মধ্যে তার বিদেশ যেতে বাধা ও ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়।

এ প্রসঙ্গে অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, ‘এখন যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক দায়িত্বে নেই বললেই চলে। আর যখন সভাপতি দায়িত্বে থাকে না তখন এক নম্বর সহ-সভাপতি দায়িত্ব পালন করেন। তাই আমাকে যদি দলের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়, তা হলে আমি তাই করব। হাজার হাজার যুবক সব তো আর ক্যাসিনো ব্যবসা করে না। সবাইকে একত্রিত করে কাজ করার জন্য এর চেয়ে ভালো মাধ্যম আর কী হতে পারে? তা ছাড়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পদ তো একসময় ছেড়ে যেতেই হবে। আমাকে নেত্রী (শেখ হাসিনা) যখন যে দায়িত্ব দিয়েছেন আমি তা পালন করেছি। এখনো যদি এ দায়িত্ব দেওয়া হয়, আমি ভিসি পদ ছেড়ে দিতে প্রস্তুত।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com