মির্জা ফখরুল ইসলাম: ‘বর্তমান সরকার ১/১১’র চেয়েও খারাপ’

মির্জা ফখরুল ইসলাম: ‘বর্তমান সরকার ১/১১’র চেয়েও খারাপ’

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমান ‘ফ্যাসিস্ট’ সরকার ২০০৭ সালের ১/১১ এর চেয়েও খারাপ। কারণ এই সরকার জনগণ এবং রাজনৈতিক দলগুলোর সকল মৌলিক অধিকার ছিনিয়ে নিয়েছে।

বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ৭৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত মিলাদ মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়াকে জেল থেকে মুক্ত করতে এবং আগামী নির্বাচন নির্দলীয় প্রশাসনের অধীনে আয়োজনে সরকারকে বাধ্য করতে নেতা-কর্মীদের কঠোর আন্দোলনে নামার আহ্বান জানান ফখরুল।

বিএনপি নেতা বলেন, ‘এক-এগারোর অবৈধ সরকার ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে আমাদের নেত্রীকে (খালেদা জিয়া) কারাবন্দি করেছিল। তারা তাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়েছিল। সেই সরকারের চেয়েও খারাপ বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকার।’

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার রাজনৈতিক দলগুলোর পাশাপাশি সাধারণ জনগণেরও সকল মৌলিক অধিকার ছিনিয়ে নিয়েছে।

নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের নির্যাতন করা হচ্ছে দাবি করে তিনি সরকারের সমালোচনা করে বলেন, ‘অরাজনৈতিক আন্দোলনকে নিষ্ঠুরভাবে দমন করেছে এই সরকার। শিক্ষার্থীদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে, তুলে নেয়া হচ্ছে। এমনকি মেয়েরাও রেহাই পাচ্ছে না।’

এমন অবস্থা থেকে রেহাই পেতে রাজনৈতিক দলগুলোর কঠোর আন্দোলন ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নেই বলে মত দেন তিনি।

ফখরুল বলেন, ‘রাজনৈতিক দল হিসেবে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা, মানুষের অধিকার রক্ষা করা এবং খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা আমাদের দায়িত্ব। এ কারণে আমাদের অবশ্যই আন্দোলনে নামতে হবে যদিও আন্দোলনে জীবনের ঝুঁকি রয়েছে।’

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার এবং নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন আয়োজনে সরকারকে বাধ্য করতে নেতা-কর্মীদের প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকারের ষড়যন্ত্রের কারণে খালেদা জিয়া জেলে। ‘তিনি শুধুমাত্র একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীই নন, তিনি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কয়েকজন ব্যক্তির মধ্যে একজন। তিনি সারাজীবন গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন।’

গণতান্ত্রিক আন্দোলনে খালেদা জিয়ার ভূমিকার কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) ৯ বছর রাজপথে ছিলেন এবং ৯০ এর স্বৈরশাসনের পতন নিশ্চিত করেন।

অনুষ্ঠানের পর জাতীয়তাবাদী মহিলা দল বিএনপি অফিসের তৃতীয় তলায় মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে।

পাশাপাশি দলটির সকল জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য দোয়ার আয়োজন করে।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি দোষী সাব্যস্ত হন খালেদা জিয়া। তখন থেকে তিনি পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি আছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com