মা-ছেলের ছবি ভাইরাল!

মা-ছেলের ছবি ভাইরাল!
মা-ছেলের ছবি ভাইরাল!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক– গায়ে পুলিশের খাকি উর্দি। পুলিশ স্টেশনে বসেই মগ্ন কাজে। সামনে ডেস্কে ছোট্ট বিছানা পাতা। তার মধ্যেই ঘুমাচ্ছে ছোট্ট ছয় মাসের মেয়ে। সম্প্রতি এমন ছবিই ছড়িয়ে পড়তেই টনক নড়ে সোশ্যাল মিডিয়ার। কে এই মহিলা? দেখা যায় ছবির নীচেই দেওয়া রয়েছে বিস্তারিত তথ্য। ইনি উত্তরপ্রদেশের ঝাঁসি শহরের পুলিশ কনস্টেবল অর্চনা জয়ন্ত। ঝাঁসির কোতোয়ালিতে পোস্টেড। ইনিই মাতৃত্ব ও দায়িত্ব একসঙ্গে পালন করছেন । কর্তব্যরত পুলিশ মা-কে দেখে মুগ্ধ নেটিজেনকুল।

জানা গেছে, চাকরিসূত্রে ছোট্ট মেয়েকে নিয়ে একাই থাকেন ঝাঁসি শহরে। স্বামী কর্মসূত্রে থাকেন হরিয়ানার গুরগাঁওতে। এদিকে বাড়ি আগ্রা ও শ্বশুরবাড়ি কানপুরে। বড় মেয়ে থাকে তাঁর দাদু-দিদার সঙ্গেই। ২০১৬ সালে স্নাতকোত্তর পড়া শেষ করে এই চাকরিতে যোগ দেন অর্চনা। একে পুলিশের কাজের গুরুদায়িত্ব অন্যদিকে মায়ের দায়িত্ব পালন , এদিকে বাড়িতেও কেউ নেই দেখভাল করার। তাই ছোট্ট ছ’মাসের মেয়ে অনিকাকে নিয়েই পুলিশ স্টেশন আসেন অর্চনা। সারাদিন কাজের ফাঁকেই চলে মেয়েকে খাওয়ানো , ঘুম পাড়ানো। বাকি সময় মায়ের সহকর্মীদের কোলে চড়ে ও আদর খেয়েই দিন কাটে ছোট্ট অনিকার।

সহকর্মীদের একজনই অর্চনার কাজের ফাঁকে ছবিটি তোলেন। তিনিই তা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। সেখানেই অনেকেই দাবি জানান এই ধরণের কর্তব্যপরায়ন পুলিশ মা-দের জন্য পুলিশ স্টেশনেই ক্রেশ খোলা উচিত। ইতিমধ্যেই সেই দাবি সানন্দে গ্রহণ করেছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ।

উত্তর প্রদেশের পুলিশ ডিরেক্টর জেনারেল ওম প্রকাশ সিং জানান , অর্চনাকে দেখে গোটা পুলিশ বিভাগই অনুপ্রাণিত। অবিলম্বে পুলিশ লাইনগুলিতে বাচ্চা রাখার ক্রেশ তৈরির পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তবে এখানে যেহেতু অর্চনা একা থাকেন , তাই তাঁর সুবিধার্থে তাঁকে বাড়ির কাছে আগ্রায় বদলি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com