মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলা: হবিগঞ্জের দুই ‘রাজাকারের’ রায় যেকোনো দিন

মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলা: হবিগঞ্জের দুই ‘রাজাকারের’ রায় যেকোনো দিন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় হবিগঞ্জের লাখাই থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মো. লিয়াকত আলীসহ দুইজনের বিরুদ্ধে যেকোনো দিন রায় ঘোষণা করবে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ রাখে।

ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশনের পক্ষে প্রসিকিউটর রানা দাশগুপ্ত ও রেজিয়া সুলতানা চমন এবং পলাতক দুই আসামির পক্ষে রাষ্ট্র নিয়োজিত আইনজীবী গাজী এমএইচ তামিম যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন।

প্রসিকিউটর রেজিয়া সুলতানা চমন জানান, ‘রাষ্ট্রপক্ষ থেকে দুই আসামির সর্বোচ্চ সাজা দাবি করে যুক্তি উপস্থাপন করা হয়েছে। দুই আসামির বিরুদ্ধে গণহত্যা, লুটপাটসহ মানবতাবিরোধী সাতটি অভিযোগ বিচার কাজ শেষ হয়।’

মামলার নথিতে বলা হয়েছে, লিয়াকত একাত্তরে মুসলিম লীগের কর্মী ছিলেন। আর আমিনুল ইসলাম ওরফে রজব আলী ছিলেন ছাত্র সংঘের সদস্য।

লিয়াকত আলী ২০০৩ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। সভাপতি থাকা অবস্থাতেই যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে ২০১০ সালে তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা ২০১৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দেয়।

মুক্তিযুদ্ধের সময় এই দুই আসামি হবিগঞ্জ জেলার লাখাই, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর ও কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রামে ব‌্যাপক যুদ্ধাপরাধ ঘটান বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।

২০১৬ সালের নভেম্বরে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে দুইজনের বিচার শুরু করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। ওই বছর ৪ ডিসেম্বর সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। ২০১৬ সালের ১৮ মে সন্দেহভাজন এই দুই যুদ্ধাপরাধীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে ট্রাইব্যুনাল। তাদের গ্রেপ্তার করা সম্ভব না হওয়ায় পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। শেষ পর্যন্ত তাদের পলাতক দেখিয়েই বিচার চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত দেয় আদালত।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com