সংবাদ শিরোনাম :
নবীগঞ্জে গরু ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে গরু রাখাল খুন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ যুব সমাজ চুনারুঘাটের আহম্মদাবাদ ইউনিয়নজুড়ে জুয়া ও মাদকের ছড়াছড়ি মাধবপুরে মালিকানার জোর দেখিয়ে পথচলায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি!  চুনারুঘাটে শিক্ষা ব্যবস্থায় ধস, ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা লাখাইয়ে ডাকাতদলের সদস্য গ্রেপ্তার শায়েস্তাগঞ্জে পচাঁবাসি খাবার বিক্রির অভিযোগে ফার্দিন মার্দিন রেষ্টুরেন্টকে জরিমানা চুনারুঘাটে ৮ বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার অনিয়মের দায়ে এয়ার লিংক ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্ককে জরিমানা বানিয়াচংয়ে এক নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হবিগঞ্জে অকৃতকার্য বেড়েছে ৩ গুণের বেশি
মাধবপুর সীমান্ত দিয়ে আসা মাদক যাচ্ছে জেলার বাইরে \ বিজয়নগরে বিক্রেতা আটক

মাধবপুর সীমান্ত দিয়ে আসা মাদক যাচ্ছে জেলার বাইরে \ বিজয়নগরে বিক্রেতা আটক

স্টাফ রিপোর্টার : মাধবপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী তেলিয়াপাড়া, সুরমা চা বাগান, মনতলা, ধর্মঘরসহ বিভিন্ন এলাকায় হাতের নাগালেই পাওয়া যাচ্ছে মাদক। এলাকাটি মাদক চোরাকারবারি ও অপরাধীদের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।
জানা যায়, প্রতিদিন এই এলাকায় কোনো না কোনো অপরাধ হচ্ছে। তবে অপরাধের মূল হোতারা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে ধরা পড়ছে না। মাঝেমধ্যে কিছু অবৈধ মাদকদ্রব্য উদ্ধার হলেও এর সঙ্গে জড়িত মূলহোতারা থেকে যাচ্ছে আড়ালে মাদকের কেনাবেচা, সেবন, পরিবহন ও ব্যবসায়ীর সংখ্যা দিন দিন উদ্বেগজনকভাবে বেড়ে চলেছে সরলমনা চা শ্রমিকদের সন্তানরাও এখন মাদকের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে।
গত সোমবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্মঘর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের মামুন মিয়া (১৯) নামে এক মাদক কারবারি’কে মাদকসহ আটক করেছে। এসআই ইউনুস এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস দল বিজয়নগর উপজেলার পাইকপাড়া হতে জালালপুরগামী পাকা রাস্তার মোড় এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করে। এসময় আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীর নিকট হতে ২৪ বোতল ভারতীয় মদ উদ্ধার পূর্বক জব্দ করা হয়। আটককৃত মামুন মিয়া কালিকাপুর গ্রামের মোঃ কামরুল হাসানের ছেলে।
আরও জানা যায়, মাদক ব্যবসায়ীরা তেলিয়াপাড়া ২০নং ও সাতছড়ি সীমান্ত এবং ধর্মঘর ইউনিয়নের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় মাদকদ্রব্য বাংলাদেশে এনে তেলিয়াপাড়া চা বাগান ও রসুলপুর এলাকায় মজুদ করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে ফাঁড়ির সরু পথে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচার করছে। মাদক ব্যবসার বিস্তৃতি বেড়ে যাওয়ায় কোমলমতি ছাত্রছাত্রী উঠতি বয়সের তরুণ-তরুণীরা ইয়াবার ছোবলে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। রাত-বিরাতে মাদকসেবীরা মাদক সেবন করে থাকে। চা বাগানের কিছু যুবক এ ব্যবসার সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে মাদক ব্যবসা ও সেবনকারীদের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় চুরি ছিনতাইসহ অপরাধ বেড়ে যাচ্ছে
তারা প্রশাসনকে আরও জোরদার অভিযান চালানোর দাবি জানিয়েছেন।
বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু আহমেদ সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এবিষয়ে বিজয়নগর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com