সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে পীরগঞ্জে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে বাড়িছাড়া হিন্দু পরিবার ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে ইয়াবাসহ দুই যুবক আটক হবিগঞ্জে শিকলে বেঁধে গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনায় স্বামী ভিংরাজ গ্রেফতার হবিগঞ্জে বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন হবিগঞ্জ শহরে মুন হাসপাতাল এবং চিকিৎসককে জরিমানা ঠাকুরগাঁওয়ে ধনীর মেয়েকে বিয়ে করার দায়ে গরিবের ছেলেকে গাছে বেধে নির্যাতন পর্তুগাল বিএনপির সভাপতি মাফিয়া ওলিউর দু’পুত্র ও সহোদর সহ পর্তুগাল পুলিশের খাঁচায় বন্দী হবিগঞ্জ বাহুবল উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্তে বিভাগীয় কমিশনার ইসলামে দান-সদকার সওয়াব অপরিসীম ৬ ঘণ্টা নয়, ৪ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে সিএনজি ফিলিং স্টেশন
মাথায় ১৮ সেলাই, অথচ মেডিকেল সার্টিফিকেট ‘সিম্পল’!

মাথায় ১৮ সেলাই, অথচ মেডিকেল সার্টিফিকেট ‘সিম্পল’!

মাথায় ১৮ সেলাই, অথচ মেডিকেল সার্টিফিকেট ‘সিম্পল’!
মাথায় ১৮ সেলাই, অথচ মেডিকেল সার্টিফিকেট ‘সিম্পল’!

স্টাফ রিপোর্টার, শরীয়তপুর: শরীয়তপু‌র সদর হাসপাতালে টাকার বিনিময়ে মেডিকেল সার্টিফিকেট পাল্টে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিগত দিনে কমবেশি এমন অভিযোগ উঠলেও বর্তমানে তা বৃদ্ধি পেয়েছে, ফলে ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন দরিদ্র রোগীরা।

হাসপাতালে ভর্তিকৃত আহত রোগীর গ্রিভিয়াস সার্টিফিকেটের হওয়ার কথা থাক‌লেও অ‌র্থের বি‌নিম‌য়ে সিম্পল সার্টিফিকেট দেওয়ার অ‌ভি‌যোগ র‌য়ে‌ছে।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, সার্টিফিকেট পরিবর্তনের ফলে আদালতে মামলা নিয়ে মারাত্বক বিপাকে পড়তে হচ্ছে তাদের। য‌দিও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি অস্বীকার করলেও খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা সি‌ভিল সার্জন।

ভূক্তভোগির অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গোসাইরহাট উপ‌জেলার কোদালপুর বালু সরদারপাড়া গ্রা‌মে গত ১৮ আগষ্ট পূর্ব বিরোধের জের ধরে ঝগড়া হয়। এরপর প্র‌তিপক্ষ লোকজন একই এলাকার মৃত ওফাব কাজীর ছে‌লে আঃ মা‌লেক কাজী ও মা‌লেক কাজীর ছে‌লে নজরুল কাজী নেতৃত্বে একদল খোকন প্রামা‌নিকের বা‌ড়ি‌তে হামলা চালায় এবং তার ছে‌লে র‌বিন প্রমা‌নিক (২৮) ওপর ধারালো দাঁ দি‌য়ে মাথায় কোপ মারে।

এতে সে গুরুতর আহত হয়ে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়। ‌সেখান থে‌কে চি‌কিৎসকরা প্রেরণ ক‌রেন শরীয়তপুর সদর হাসপাতা‌লে। দায়ের কোপে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত স্থানে ১৮টি সেলাই দেয়া হয়। র‌বিন‌কে মারধ‌রের সময় তা‌দের বসত বা‌ড়ি‌তেও হামলা চালা‌নো হয়। ওই সময় র‌বিন‌কে উদ্ধা‌রের জন্য তার মা মোসাঃ পার‌ভিন বেগম (৩৫) এ‌গি‌য়ে গে‌লে তা‌কেও মারধর করা হয়।

আর এ‌দের দুইজন‌কে একসা‌থে চিকিৎসা দেন চিকিৎসক। সেখা‌নকার সার্জারী ওয়া‌র্ডে র‌বিন‌কে ১৮ আগষ্ট থে‌কে ০৭ সেপ্টম্বর পর্যন্ত চি‌কিৎসাধীন ‌ছি‌লেন ব‌লে ছাড়পত্রে উ‌ল্লেখ র‌য়ে‌ছে। এছাড়া আহত পার‌ভিন বেগম‌কে ১৮ আগষ্ট থে‌কে ২০ আগষ্ট পর্যন্ত চি‌কিৎসা দেওয়া হ‌য়ে‌ছে।

এ ঘটনায় গত ২১ আগষ্ট বিজ্ঞ চীফ জু‌ডি‌সিয়াল ম্যা‌জিঃ আমলী আদালতে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে খোকন প্রামা‌নিক মামলা করেন। আদালত এ মামলাটির এজাহার নিতে গোসাইরহাট থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মেডিকেল সার্টিফিকেট চাইলে সাধারণ আহত উ‌ল্লেখ ক‌রে আবা‌সিক মে‌ডি‌কেল অ‌ফিসার (আরএমও) সুমন কুমার পোদ্দার, পঙ্গু চি‌কিৎসক আকরাম এলাহী, আবা‌সিক মে‌ডি‌কেল অ‌ফিসার ডা. মাফজুর রহমা‌নের সাক্ষা‌রিত চিকিৎসাপত্র‌টি দেওয়া হয়। এ‌তে র‌বিনের উপর হামলার ঘটনা সিম্পল উ‌ল্লেখ করা হ‌য়ে‌ছে।

এ‌দি‌কে, রোববার (২২ সেপ্টম্বর) ওই মে‌ডিকল সার্টিফিকেট আদাল‌তে জমা দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। য‌দিও এই সার্টিফিকেটে বাদী প‌ক্ষের আইনজীবী অনাস্থা প্রকাশ কর‌লে আদালত পূর্ণতদন্ত ক‌রে জমাদা‌নের নি‌র্দেশ দি‌য়ে‌ছেন। এছাড়া, সোমবার (২৩ সেপ্টম্বর) ওই মামলার ৩জন আসামী আদাল‌তে আত্মসমার্পন কর‌লে বিচারক তা‌দের জা‌মিন নামঞ্জুর করে কারাগা‌রে পাঠি‌য়ে‌ছেন। বর্তমা‌নে তারা জেলা কারাগা‌রে রয়ে‌ছে।

মামলার বাদী খোকন প্রামা‌নিক ব‌লেন, হামলাকারীরা আমা‌দের আত্নীয়। পু‌ত্রের বউকে নি‌য়ে তা‌দের প‌রিবা‌রে সা‌থে একটু ঝা‌মেলা চল‌ছিল। এ সু‌যো‌গে আমার ছে‌লে চাচা শ্বশুর ই‌দ্রিস কাজী আমার স্ত্রী‌কে কু-পস্তাব দি‌য়ে আস‌ছিল। বিষয়‌টি নি‌য়ে তা‌দের সা‌থে আমা‌দের কথা কাটাকা‌টি হয়। এরপর তারা দল‌বে‌ধে আমার বা‌ড়ি‌তে হামলা ক‌রে ও স্ত্রী এবং ছে‌লে‌কে গুরুতর আহত ক‌রে। হাসপাতা‌লে ২১দিন চি‌কিৎসা শে‌ষে চি‌কিৎসকরা আদাল‌তে টাকার বি‌নিম‌য়ে নরমাল মে‌ডি‌কেল সার্টিফিকেট দি‌য়ে‌ছে। এ‌তে ন্যায়বিচার পাওয়া নি‌য়ে আশংকায় আছি। অআমি চাই ডাক্তররা স‌ঠিক রি‌পোর্ট দেউক।

বাদী প‌ক্ষের আইনজীবী সে‌লিম আহমদ ব‌লেন, এভাবে ডাক্তার সার্টিফিকেট দেয়ায় ন্যায়বিচার পাওয়া থেকে তার বঞ্চিত হওয়ার আশংকা রয়েছে। এ বিষয়‌টি যখন আদাল‌তের কা‌ছে তু‌লে ধরা হয় তখন বোর্ড গঠন ক‌রে পূর্ণরায় সার্টিফিকেট দেওয়া নি‌র্দেশ দেওয়া হয়ে‌ছে।

এই সার্টিফিকেট দেওয়া বিষ‌য়ে ‌মে‌ডি‌কেল অ‌ফিসার ডা. মাহফুজ রহমান কোন কথা বল‌তে রা‌জি হয়‌নি। ত‌বে শরীয়তপুর সদর হাসপাতা‌লের আবা‌সিক মে‌ডি‌কেল অ‌ফিসার (আরএমও) সুমন কুমার পোদ্দার ব‌লেন, এ রো‌গী য‌দি আমা‌দের কা‌ছে অ‌ভি‌যোগ ক‌রে, তাহ‌লে আমরা তদন্ত ক‌রে ব্যবস্থা নেব। এছাড়া য‌দি আদাল‌তের মাধ্য‌মে আবার সার্টিফিকেট চাওয়া হয় তাহ‌লে বোর্ড গঠন ক‌রে স‌ঠিক সার্টিফিকেট দেওয়া হ‌বে।

জেলা সি‌ভিল সার্জন খ‌লিলুর রহমান ব‌লেন, এমন কোন সার্টিফিকেটের বিষ‌য়ে আমার জানা নেই। য‌দি ওই রোগী আদাল‌তে না রাজি দেন। তাহ‌লে আমা‌দের কা‌ছে নতুন ক‌রে সার্টিফিকেট চাওয়া হ‌বে। এরপর বোর্ড গঠন ক‌রে নতুন চি‌কিৎসক দি‌য়ে সার্টিফিকেট তৈ‌রি ক‌রে দেওয়া হ‌বে। আর য‌দি অ‌র্থে বি‌নিম‌য়ে কিছু হ‌য়ে থা‌কে তাহ‌লে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলার স্বাস্থ্য বিভা‌গের এ শীর্ষ কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com