সংবাদ শিরোনাম :
নতুন ব্রিজ থেকে ৪ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক বিক্রেতা গ্রেফতার নতুন ব্রিজ থেকে ৪ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক বিক্রেতা গ্রেফতার চোরচক্রের গডফাদার রিপন ও তার সহযোগিকে সনাক্ত করা হয়েছে চীফ জুডিসিয়াল আদালতের সামন থেকে আরও একটি মোটর সাইকেল চুরি আজমিরীগঞ্জে সিএনজি স্ট্যান্ড দখল নিয়ে দুই দলের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া আজমিরীগঞ্জে গাঁজাসহ টমটম চালক আটক লাখাইয়ে ডাকাতি মামলার আসামি চট্টগ্রামে গ্রেপ্তার বানিয়াচংয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পাখি শিকার ও পাচারের লিখিত অভিযোগ অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ল অর্ধশতাধিক ছাত্রী! হবিগঞ্জে স্কুল মাঠে পুকুর খনন নিয়ে ফেসবুকে উত্তাপ, অবস্থান জানাল প্রশাসন লোকাল জার্সিকে অ্যাডিডাসের বলে বিক্রি করার দায়ে ইজি ফ্যাশনকে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা
বিল্লাল ফিটনেস সেন্টার উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা।

বিল্লাল ফিটনেস সেন্টার উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা।

বিল্লাল ফিটনেস সেন্টার উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা।

মোঃ সনজব আলীঃ পুলিশ সদস্যদের শারীরিক সক্ষমতা বৃদ্ধি ও মানসিক সুস্থতার জন্য হবিগঞ্জ জেলার মানবিক পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ উল্লাহ বিপিএম, পিপিএম হবিগঞ্জ পুলিশ লাইন্সের ব্যারাকের নিচ তলায় সুপরিসর কক্ষে উদ্বোধন করেছেন “বিল্লাল ফিটনেস সেন্টার”। উক্ত সেন্টারে টেবিল টেনিস, ট্রেড মিল ও শারীরিক ব্যায়ামের বিভিন্ন আধুনিক উপকরণ রয়েছে। উল্লেখ্য যে, যাহার নামে উক্ত সেন্টারটির নামকরণ করেছেন তিনি হলেন বিশেষ আনসার সদস্য বিল্লাল হোসেন। বাড়ি কুষ্টিয়া জেলায়। ২০০৫ সাল হইতে পুলিশের সাথে অংগীভুত হয়ে কাজ করেছেন। পুলিশ লাইন্স হবিগঞ্জ এ অবস্থান করে পুলিশের বিভিন্ন ডিউটিতে অংশ গ্রহন করেন। বিশেষ করে ডিউটির পাশাপাশি পুলিশ লাইন্সের বিভিন্ন সৌন্দর্যবর্ধনে সব সময় লেগে থাকতেন। পুলিশ লাইন্সে যেকোন ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজনে সহায়তায় তার আন্তরিক প্রচেষ্টা ও পরিশ্রম সকলকে মুগ্ধ করে। তার কাজের সুনাম ছড়িয়ে পরে বিভিন্ন থানায়। যেকোন থানায় কোন অনুষ্টানে আনসার বিল্লাল এর সাহায্য নিতে হয়। কাজ পাগল এই লোকটি সারাক্ষণ কাজের মধ্যে আনন্দে ডুবে থাকতেন। পুলিশ লাইন্সে নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন প্রকার ফুলের গাছের পরিচর্যা ও বিভিন্ন প্রকার সবজি চাষ করতেন। একযুগের ও বেশী সময় পুলিশ লাইন্সে থেকে পুলিশ পরিবারের একজন সদস্য হিসাবে নিজের বাড়ির মতই ভালবেসে ছিলেন পুলিশ লাইন্সকে। তার কাজের দক্ষতা ও আন্তরিকতা দেখে পুলিশ সুপার হবিগঞ্জ স্যার তাকে ইঞ্জিনিয়ার বিল্লাল বলে ডাকতেন। এতে তিনি মনে মনে গর্ববোধ করতেন। গত ১৬/১১/২০২০খ্রিঃ তারিখ দিনের বেলা পুলিশ লাইন্সের একটি নারকেল গাছে উঠতে গিয়ে গাছে পাশ দিয়ে যাওয়া পল্লী বিদ্যুৎতের তারের সাথে অসাবধান বশতঃ হাত লেগে গেলে বিদ্যুৎ পিষ্ট হয়ে নিচে পড়ে গিয়ে অকাল মৃত্যুবরণ করেন। তার মৃত্যুতে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার, হবিগঞ্জ স্যার গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেন। সন্ধ্যার পর পুলিশ লাইন্সে বিল্লাল হোসেনের জানাজার নামাজ শেষে জেলা পুলিশের সহায়তায় মৃতদেহ কুষ্টিয়ায় প্রেরন করা হয়। ইং ১২/১২/২০২০খ্রিঃ তারিখ মাসিক কল্যাণ সভায় বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী ও ছোট ০৩ সন্তানের উপস্থিতিতে জেলা পুলিশের সকল সদস্যদের সহায়তায় প্রায় ৪,৩৬,০০০/-(চার লক্ষ ছয়ত্রিশ হাজার) টাকা পরিবারের সদস্যদের আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়। পুলিশ সুপার স্যার কর্মপাগল বিল্লাল হোসেনের স্মৃতিকে স্বরণ রাখার জন্য তার প্রতি ভালবাসা ও উদারতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন তার নামে “বিল্লাল ফিটনেস সেন্টার” উদ্ভোদন করে। পুলিশ সুপার স্যার একই সাথে পুলিশ সদস্যদের জ্ঞান চর্চার জন্য “পুলিশ লাইন্স পাঠাগার” উদ্ভোদন করেন। স্যারের এই মহতি উদ্যোগের জন্য জেলা পুলিশ স্যারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে সকল পুলিশ সদস্যরা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com