দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও বাংলাদেশের শোচনীয় হার

দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও বাংলাদেশের শোচনীয় হার

দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও বাংলাদেশের শোচনীয় হার
দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও বাংলাদেশের শোচনীয় হার

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- নেপিয়ার থেকে ক্রাইস্টচার্চ- বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের চিত্রনাট্য একই। পাশাপাশি বোলিংটাও। আবারো ব্যর্থতার গল্প লিখলো বাংলাদেশের ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগ। যদিও টপ অর্ডারের ব্যর্থতার পর আবারো ত্রাতা হয়ে দেখা দেন মোহাম্মদ মিঠুন, ব্যাক টু ব্যাক ফিফটি পেয়েছেন তিনি। বাংলাদেশ শেষ অবধি লড়াই করার মতো পুঁজি পেলেও ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি করে দলকে সহজ জয় পাইয়ে দিয়েছেন কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল। তাতে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিশ্চিত করেছে কিউইরা (২-০)। বাংলাদেশ আবারো হেরেছে ৮ উইকেটে।

লক্ষ্য মাত্র ২২৭ রানের। আগের ম্যাচে ২৩২ রানের লক্ষ্য কিউইরা পার হয়ে গিয়েছিল ৪৪.৩ ওভারে। এবার তো লক্ষ্য আরও কম। এই লক্ষ্য পাড়ি দিতে গিয়ে বাংলাদেশের বোলারদের কাছ থেকে খুব বড় চ্যালেঞ্জও যে পেয়েছেন কিউই ব্যাটসম্যানরা তা নয়। রীতিমত স্বাচ্ছন্দ্যে খেলে, ৩৬.১ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে গেলো স্বাগতিকরা।

নেপিয়ারের চিত্রনাট্যই যেন লেখা ছিল ক্রাইস্টচার্চের জন্য। প্রথম ম্যাচে যেমন বাংলাদেশের হয়ে লড়াই করেছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন, ক্রাইস্টচার্চে আজও লড়াই করলেন মিঠুন। নেপিয়ারে প্রথম ম্যাচে যেমন গাপ্টিল সেঞ্চুরি করে অপরাজিত থাকলেন ১১৭ রানে। আজ তিনি আউট হয়ে গেলেও করলেন ১১৮ রান। নিউজিল্যান্ডের জয় এলো ৮ উইকেটে। পার্থক্য শুধু, আগের ম্যাচ জিততে লেগেছিল ৪৪.৩ ওভার। আর আজ লাগলো মাত্র ৩৬.১ ওভার।

কেবল মোস্তাফিজুর রহমানই পারলেন কিউইদের গায়ে কিছুটা আঁছড় দিতে। আর কেউ পারেননি। ওপেনার হেনরি নিকোলস এবং সেঞ্চুরিয়ান মার্টিন গাপটিলের উইকেট তুলে নেন তিনি। আবার মোস্তাফিজের বলে দু’জনেরই ক্যাচ ধরেন লিটন দাস।

দলীয় ৪৫ রানের মাথায় কিউইদের উদ্বোধনী জুটিতে ভাঙন ধরাতে সক্ষম হন মোস্তাফিজুর রহমান। ১৪ রান করা হেনরি নিকোলসকে ফিরিয়ে দেন তিনি। ৮ম ওভারে মোস্তাফিজের করা ৪র্থ বলটি লেগ সাইড দিয়ে বাউন্ডারি মারতে চেয়েছিলেন নিকোলস। কিন্তু ডিপ স্কোয়ার লেগে বল উঠে গেলে সেটা তালুবন্দী করে নেন লিটন দাস।

হেনরি নিকোলস আউট হয়ে যাওয়ার পর কেনে উইলিয়ামস আর মার্টিন গাপটিল মিলে গড়ে তোলেন ১৪৩ রানের বিশাল জুটি। তাদের দু’জনের এই জুটির কাছেই মূলতঃ হার মানতে বাধ্য হয় বাংলাদেশ। ২৮.৫ ওভারে দলীয় ১৮৮ রানের মাথায় মার্টিন গাপটিলের উইকেট নেন মোস্তাফিজ। ডিপ মিড উইকেটে লিটনের হাতে ক্যাচ দেন তিনি। ৮৮ বলে ১১৮ রানের ইনিংস খেলেন গাপটিল। ১৪টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৪টি ছক্কার মার মারেন তিনি।

এরপর বাকি কাজ শেষ করতে আর কোনোই বেগ পেতে হয়নি কেনে উইলিয়ামসন আর রস টেলরের। ৮৬ বলে ৬৫ রান করেন উইলিয়ামসন। ২১ রানে অপরাজিত থাকেন টেলর।

আর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৪৯.৪ ওভারে ২২৬ রান তুলতেই অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com