‘জিয়াউর রহমানের বহুদলীয় গণতন্ত্র মানে যুদ্ধপরাধীদের পুনর্বাসন’

‘জিয়াউর রহমানের বহুদলীয় গণতন্ত্র মানে যুদ্ধপরাধীদের পুনর্বাসন’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জিয়াউর রহমানের বহুদলীয় গণতন্ত্র মানে যুদ্ধপরাধীদের পুনর্বাসনেরই নামান্তর। আর এই জন্য বাংলাদেশ এগুতে পারে নি। বাংলাদেশ যখন উন্নতির মুখ দেখতেছিল তখনই অন্ধকার নেমে আসে। ৭৫ এর হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে গণতন্ত্রের কবর রচনা করা হয়। জাতির পিতার নাম ইতিহাস থেকে মুছে ফেলার চেষ্টা করা হয়। আর অন্যদিকে বলা হয় বহু দলীয় গণতন্ত্র করা হয়েছে। আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এক ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কারা হচ্ছিল। কিন্তু একসময় আইন করে তাদের ছেড়ে দেওয়া হলো। বাঙালি জাতিকে অন্ধকারে রাখা হলো। অর্ডিনেন্স জারি করে যাদের বিচার বাতিল করা হয়েছিল সেই অর্ডিনেন্স বাতিল করে তাদের আবার বিচার শুরু করি আমরা।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানি হানাদাররা যেমন মানুষদের পুড়িয়ে মেরেছে ঠিক একইভাবে বিএনপি মানুষদের পুড়িয়ে মেরেছে। এরা জনগণের কল্যাণ করতে পারে না।
তিনি আরও বলেন, যারা দেশে ২৮ বছর ক্ষমতায় ছিল তারা কেনো উন্নতি করতে পারে নাই। কল্যাণ করতে পারে নাই। কারণ তারা তা করতে চায় নি। একমাত্র আওয়ামী লীগ এলেই দেশের উন্নতি হয়। আজকে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।
তিনি বলেন, আমরা জাতির পিতার কাছে ওয়াদা দিলাম ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত দেশ গড়বো। বাংলাদেশের জনগণকে উন্নয়নের ধারা তরান্বিত করারও আহ্বান জানাচ্ছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com