জাপা প্রার্থীর পোস্টারে শেখ হাসিনা, রওশন এরশাদ ও রাঙ্গার ছবি

জাপা প্রার্থীর পোস্টারে শেখ হাসিনা, রওশন এরশাদ ও রাঙ্গার ছবি

জাপা প্রার্থীর পোস্টারে শেখ হাসিনা, রওশন এরশাদ ও রাঙ্গার ছবি
জাপা প্রার্থীর পোস্টারে শেখ হাসিনা, রওশন এরশাদ ও রাঙ্গার ছবি

লোকালয় ডেস্কঃ কুড়িগ্রাম-২ ও কুড়িগ্রাম-৩ নির্বাচনি আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থীদের নির্বাচনি পোস্টারে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে নিজ দলের দলীয় প্রধান ছাড়াও আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ এবং মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গার ছবি ছাপানো হয়েছে। নির্বাচনি আচরণবিধি অনুযায়ী এটি আচরণবিধির স্পষ্ট লঙ্ঘন বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম রাকিব।

কুড়িগ্রাম-২ আসনের (কুড়িগ্রাম সদর, রাজারহাট ও ফুলবাড়ী উপজেলা) বিভিন্ন স্থানে টানানো জাতীয় পার্টির প্রার্থী পনির উদ্দিন আহমেদের নির্বাচনি পোস্টারে দেখা গেছে, তিনি দলীয় প্রধান জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছবির পাশাপাশি শেখ হাসিনার ছবি ছেপেছেন। মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে কুড়িগ্রাম-২ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত কোনও প্রার্থী নেই। তাই মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে জাতীয় পার্টির প্রার্থীর পোস্টারে শেখ হাসিনার ছবি ছাপানো হয়েছে বলে জাতীয় পার্টির সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে জানতে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থী পনির উদ্দিন আহমেদের মোবাইল ফোনে কল দিলেও তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আবুল কালাম জানান,  ‘কুড়িগ্রাম-২ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মূলত মহাজোটের প্রার্থী। তবে তার পোস্টারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ছবি ছাপানো উচিত হয়নি। এটা হয়তো ভুলবশত ছাপানো হয়েছিল। আমি যতদূর জানি ওই ছবি ছাপানো পোস্টারগুলো বাতিল করা হয়েছে।’

এ ব্যাপারে জানতে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও কুড়িগ্রাম সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিন আল পারভেজের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি আমার নজরে আসেনি। এমনটা হয়ে থাকলে তা অবশ্যই আচরণবিধির লঙ্ঘন। বিষয়টি নিয়ে খোঁজ নিয়ে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এদিকে কুড়িগ্রাম-৩ নির্বাচনি আসনে ( উলিপুর উপজেলা) জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য ডা. আককাছ আলী সরকার তার নির্বাচনি পোস্টারে নিজ দলীয় প্রধান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছবি ছাড়াও দলীয় কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ ও মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গার ছবি ছেপেছেন। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ওই আসনে নির্বাচনে অংশ নেওয়া অন্যান্য প্রার্থী ও ভোটারদের মধ্যে নানা গুঞ্জণ তৈরি হয়েছে।

ওই আসনে নৌকা প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনীত প্রার্থী এমএ মতিন জানান, ‘এটা আচরণবিধির স্পষ্ট লঙ্ঘন। কোনও প্রার্থী তার নিজের পাশাপাশি তার বর্তমান দলীয় প্রধান ছাড়া আর কারও ছবি পোস্টার কিংবা ব্যানারে ব্যবহার করতে পারবেন না। অথচ এ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী তার দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও মহাসচিবের ছবি ছাপিয়েছেন। আমরা বিষয়টি নিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ জানাব।’

নির্বাচনি পোস্টারে নিজের ও দলীয় প্রধানের ছবি ছাড়াও অতিরিক্ত ছবি ছাপানোর বিষয়ে জানতে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য ডা. আককাছ আলী সরকারকে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

তবে জাতীয় পার্টি, উলিপুর উপজেলা শাখার সভাপতি আতিয়ার মুন্সী বলেন, ‘এটা ভুল হয়ে গেছে। এই পোস্টারগুলো যাতে আর লাগানো না হয় সে ব্যাপারে এখনি ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

এ ব্যাপারে কুড়িগ্রাম-৩ আসনের দায়িত্বে থাকা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উলিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল কাদের বলেন, ‘আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। প্রয়োজনে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিষয়টি নিয়ে কুড়িগ্রাম জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘বিষয়টি আমি অবগত নই, আপনার মাধ্যমে জানতে পারলাম। তদন্ত পূর্বক এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com