ছেলেদেরও স্কার্ট পরে স্কুলে আসার নির্দেশনা!

ছেলেদেরও স্কার্ট পরে স্কুলে আসার নির্দেশনা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শিরোনাম পড়ে ভ্রু-কুঁচকাতে পারেন বটে ঘটনা কিন্তু অনেকটা তা-ই। ট্রাউজার পরলে গরম লাগলে মেয়েদের স্কার্ট পরেই ছাত্রদের স্কুলে আসার নির্দেশনা দিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। কারণ স্কুল ড্রেসে পায়ের অংশে পরার জন্য ট্রাউজার আর স্কার্টের বিকল্প অপশন নেই। আইন বলে কথা!

মূলত গরমের কারণে ছাত্ররা শর্টস পরে আসতে শুরু করলে বাঁধে বিপত্তি। কারণ স্কুলের ড্রেস কোডে এটার অনুমতি নেই। এজন্য বিকল্প হিসেবে ছেলেদেরও স্কার্ট পরিয়ে স্কুলে পাঠানোর এই পরামর্শ দেয়া হয় অভিভাবকদের।

ডেইলি মেইল জানায়, যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ডশায়ারের চিলটের্ন এজ সেকেন্ডারি স্কুলে আজব এই ড্রেস কোড চালু রয়েছে। যেসব ছাত্র ট্রাউজার পরতে চায় না, তাদেরকে শর্টসের পরিবর্তে স্কার্ট পরে আসতে বলা হয়েছে।

স্কুলের একাডেমিক ইয়ার শুরুর প্রথম দিকেই এই কথিত ফরমাল ড্রেস কোড প্রণয়ন করা হয়। এক্ষেত্রে শরীরের পায়ের অংশে পরিধানের জন্য কেবল ট্রাউজার এবং স্কার্ট অনুমোদন দেয়া হয়।

এই আইনের প্রেক্ষিতে এক ছাত্রের বাবা অ্যালিস্টার ভিন্স স্কুল কর্মচারীদের কাছে জানতে চান, যদি তার ছেলে দর্জি দোকানে অর্ডার দিয়ে বিশেষ শর্টস তৈরি করে পরে তাহলে স্কুলে আসতে পারবে কিনা।

ওই বাবাকে অনেকটা হতবুদ্ধি করে দিয়ে বলা হয়, স্কুলের ড্রেস কোড ‘জেন্ডার নিউট্রাল তথা লিঙ্গ সার্বজনীন’। এই ক্ষেত্রে ছাত্ররা বরং স্কার্ট পরেই স্কুলে আসতে পারে।

এটা অনেক লিঙ্গ সার্বজনীন পোশাক প্রচলনের উদ্যোগ থেকে এসেছে যাতে ট্রান্সজেন্ডার তথা রূপান্তরকামীরা পোশাক পরতে স্বাচ্ছ্যন্দবোধ করতে পারে। অনেক স্কুল কর্তৃপক্ষই বলছে, লিঙ্গ সার্বজনীন পোশাক হিসেবে ছাত্রী-ছাত্রী উভয়েই ট্রাউজার এবং স্কার্ট পরতে পারে।

প্রধান শিক্ষক মোইরা গ্রিন বলেন, গত ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে অভিভাবকদের সম্মতি নিয়েই স্কুলের ফরমাল ড্রেসের বিষয়ে চিলটের্ন এজ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com