গর্ভবতী গাভি চুরি করে জবাই, গ্রেফতার ২

গর্ভবতী গাভি চুরি করে জবাই, গ্রেফতার ২

lokaloy24.com

লোকালয় ডেস্ক: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় গর্ভবতী গাভি চুরির পর জবাই করে মাংস লুটের ঘটনায় রবিউল ইসলাম ও মেহেদী হাসান সরদার নামে কিশোর গ্যাংয়ের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার সন্ধ্যায় পুলিশ শহরের হাসপাতাল সংলগ্ন বোনের বাসা থেকে রবিউলকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় সাতজন অংশ নেয় বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে রবিউল। এর আগে মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনায় জড়িত মেহেদী হাসান সরদারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতার হওয়া রবিউলের বাড়িতে ফ্রিজে রাখা গাভীর জবাই করা ১২ কেজি মাংস উদ্ধার করে পুলিশ। রবিউল উপজেলার উত্তর মিঠাখালী গ্রামের মো. আ. হালিম মুন্সীর ছেলে ও মেহেদী সরদার জরিপের চড় গ্রামের ইউনুস সরদারের ছেলে।

গত সোমবার রাতে উপজেলার জরিপেরচর গ্রামের সৌদি প্রবাসী হাফেজ কামাল ঘরামীর গোয়াল ঘর থেকে সংঘবদ্ধ কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা গর্ভবতী গাভিটি চুরি করে। ওই রাতে মাঠে নিয়ে জবাই করে মাংস লুট করে। এ সময় গাভিটির গর্ভে থাকা প্রায় সাড়ে নয় মাস বয়সী বকনা বাছুর ও নাড়িভূড়ি মাঠে রেখে পালিয়ে যায় তারা।

মঙ্গলবার রাতে কামাল বিদেশ থাকায় তার শ্বশুর উপজেলার আলগী পাতাকাটা গ্রামের মনেচ সিকদার বাদী হয়ে তিনজন ও অজ্ঞাত আরো ৪/৫জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন।

স্থানীয় চৌকিদার আ. জলিল জানান, মুন্না এবং রাব্বি এরা এলাকার বখাটে। এদের বিরুদ্ধে এলাকায় একাধিক হাস, মুরগি, ছাগল চুরিসহ বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগ রয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার এসআই হুমায়ুন কবীর জানান, মোবাইল ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে রবিউলকে গ্রেফতার করা হয়।

ওসি আ.জ.ম মাসুদ্দুজামান জানান, মামলা দায়েরের চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই ঘটনার সঙ্গে জড়িত রবিউলকে লুট করা মাংসসহ গ্রেফতার করা হয়। এর আগে এ মামলার অপর আসামি মেহেদীকে মঙ্গলবার গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরো জানান, রবিউল এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com