কর্তৃপ‌ক্ষের উদাসীনতায় লাখাইয়ে সরকারী অ‌ফিসে অ‌নিয়ম।। সেবা প্রত্যাশী‌দের ভোগা‌ন্তি।

কর্তৃপ‌ক্ষের উদাসীনতায় লাখাইয়ে সরকারী অ‌ফিসে অ‌নিয়ম।। সেবা প্রত্যাশী‌দের ভোগা‌ন্তি।

কর্তৃপ‌ক্ষের উদাসীনতায় লাখাইয়ে সরকারী অ‌ফিসে অ‌নিয়ম।। সেবা প্রত্যাশী‌দের ভোগা‌ন্তি।

হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ
লাখাই উপজেলায় বিভিন্ন সরকারি অ‌ফি‌সে অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারীতার কারণে সেবা প্রত্যাশীদের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। উপজেলা প্রশাসনের এসব সরকারি অফিসে কর্মরতরা মনগড়াভাবে পরিচালনা করছেন অফিসিয়ালি কার্যক্রম। স‌রেজ‌মি‌নে ঘু‌রে দেখা যায়, বিকাল ৩টা থে‌কে ৪টার ম‌ধ্যে অ‌ধিকাংশ অ‌ফিস তালাবদ্ধ হ‌য়ে যায়।

অ‌ধিকাংশ কর্মকর্তা – কর্মচারী কমর্স্থ‌লে অবস্থান ক‌রেন না। ফ‌লে সময় ম‌তো অ‌ফি‌সেও উপ‌স্থিত হন না তারা । এ‌তে অ‌নেক সেবা প্রত্যাশীরা কা‌ঙ্খিত সেবা না পে‌য়ে ফেরত যে‌তে হয়। উপ‌জেলা ঘু‌রে জানা যায়, উপ‌জেলা নির্বাহী অ‌ফিস, উপ‌জেলা প‌রিষ‌দের কার্যালয়, উপ‌জেলা হিসাবরক্ষণ অ‌ফিস, প্র‌কৌশলীর কার্যালয়, যুব উন্নয়ন অ‌ফিস নির্ধা‌রিত সময় সেবা পাওয়া যায়। উপ‌জেলার অ‌নেক অ‌ফি‌সে নিয়‌মিত অ‌ফিসার না থাকায় অ‌নেক অ‌ফি‌সে ভারপ্রাপ্ত, অ‌তি‌রিক্ত দা‌য়িত্প্রোপ্ত কর্মকর্তা দি‌য়ে কার্যক্রম চল‌ছে।‌ আর এ‌তেই অ‌নিয়ম বৃ‌দ্ধি পে‌য়ে‌ছে। উপ‌জেলার গুরুত্বপূর্ণ অ‌ফিস হি‌সাবরক্ষণ অ‌ফি‌সে দীর্ঘ‌দিন পর নিয়‌মিত অ‌ফিসার আসায় উনা‌কে রা‌তেও অ‌ফিস কর‌তে দেখা যায়। তি‌নি অর্থ মন্ত্রণাল‌য়ের স্থানীয় প্র‌তি‌নি‌ধি হিসা‌বে সরকা‌রি আ‌র্থিক শৃঙ্খলা রক্ষায় সরকা‌রি বি‌ধি-‌বিধান, ট্রেজা‌রি রুলস, চাকু‌রি বিধানাবলী, জিএফআর, পি‌পিআর-২০০৮ ইত্যা‌দি মে‌নে কাজ কর‌তে গি‌য়ে বি‌ভিন্ন বাঁধা ও হুম‌কির সম্মূখীন হ‌চ্ছেন। যেখা‌নে সরকা‌রের পক্ষ থে‌কে অ‌নিয়‌মের বিরু‌দ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হ‌চ্ছে সেখা‌নে তি‌নি বি‌ভিন্ন অ‌ফি‌সের অ‌নিয়‌মিত বি‌লে লি‌খিত আপ‌ত্তি দি‌য়ে ফেরত দি‌য়ে সাহসীকতা প্রদর্শন ক‌রে‌ছেন। কোন ক্ষে‌ত্রে সরকা‌রি কোষাগা‌রে টাকা ফেরত এ‌নে‌ছেন। এ‌তে কিছু অ‌ফি‌সের কর্মকর্তা ও কর্মচারী হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার ওপর খুবই না‌খোশ হ‌য়ে উনা‌র স্বাধীন কা‌জে ব্যাঘাত সৃ‌ষ্টি কর‌ছেন। উনা‌কে বি‌ভিন্নভা‌বে না‌জেহাল করার তথ্য পাওয়া যা‌চ্ছে। এ‌তে তি‌নি বাধ্য হ‌য়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ‌কে অব‌হিত ক‌রে‌ছেন। উনা‌র উত্থা‌পিত আপ‌ত্তির জবাব না দি‌য়ে উনা‌কে চা‌পে ফে‌লে অ‌নিয়‌মিত ও অ‌তি‌রিক্ত দা‌বির বিল পাশ কর‌তে বাধ্য করার কৌশল অবলম্বন করা হ‌চ্ছে এবং উনি দ্রুত বদলী হ‌য়ে যেন চ‌লে যান সেজন্য কিছু দুষ্কৃত কর্মকর্তা ও কর্মচারী মি‌লে উনা‌কে হুম‌কির পাশাপা‌শি প্র‌তিবন্ধকতা স্বরূপ নিকৃষ্ট কাজ হি‌সে‌বে টয়‌লে‌টে তালা ঝু‌লি‌য়ে দেয়। সেই সা‌থে ভিত‌রে প্র‌বে‌শের দরজায়ও ব্যা‌ড়ি‌কেট প্রদান করা হ‌য়ে‌ছে। ফ‌লে হিসাবরক্ষণ অ‌ফি‌সে দূর-দূরান্ত হ‌তে আগত সেবা প্রত্যাশী, বৃদ্ধ পেনশনার, বি‌ভিন্ন অ‌ফি‌সের কর্মচারীগণ শৌচাগার ব্যবহার কর‌তে না পে‌রে চরম অস‌্বস্থি‌তে প‌ড়ে‌ছেন। প্র‌য়োজনীয় সংস্কা‌রের অভা‌বে ‌শৌচাগা‌রের অবস্থাও শোচনীয়। এটা সভ্য সমা‌জে অকল্পনীয় ও অগ্রহণ‌যোগ্য। এ অ‌নিয়‌মের দেখার যেন কেউ নেই। এ ব্যাপা‌রে প্রশাস‌নের নীরব ভূ‌মিকা উ‌দ্বেগজনক। যা সরকা‌রের অ‌র্জিত সাফল্য‌কে ম্লান কর‌ছে।
‌তাহ‌লে যারা এত নী‌তি কথা ও বক্তব্য ব‌লে উৎসাহ দিয়ে‌ছিল, আজ তারা কোথায় ।

সরকা‌রি দা‌য়িত্ব পালন কর‌তে গি‌য়ে, দীর্ঘ‌দি‌নের অ‌নিয়ম রোধ কর‌তে গি‌য়ে, আপ‌ত্তি দি‌লে, সরকা‌রি কোষাগা‌রে টাকা জমা করা‌লে কেন উপ‌জেলা হিসাবরক্ষণ অ‌ফি‌সের বাথরুম তালাবদ্ধ ক‌রে দরজায় প্র‌তিবন্ধকতা তৈরী ক‌রে রাখা হ‌য়ে‌ছে ? এ কেমন মধ্যযুগীয় বর্বরতা!? তারা কারা ? প্রশাসন আজ কোথায় ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com