এরশাদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি, তবে শঙ্কামুক্ত নন

এরশাদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি, তবে শঙ্কামুক্ত নন

এরশাদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি, তবে শঙ্কামুক্ত নন
এরশাদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি, তবে শঙ্কামুক্ত নন

ঢাকা- জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের তার বড় ভাই এরশাদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে বলেছেন, মেডিসিন সাপোর্ট নিয়ে বেঁচে আছেন এরশাদ। তবে শঙ্কামুক্ত নন।

বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান চিকিৎসাধীন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা নিয়ে শনিবার রাজধানীর বনানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন হয়।

গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, উনি এখনও শঙ্কামুক্ত নয়। ওনার অবস্থা আশঙ্কাজনক। মেডিসিন সাপোর্ট দেয়া হচ্ছে। সেই সাপোর্ট চলতে থাকবে। মেডিসিন সাপোর্ট নিয়ে বেঁচে আছেন উনি।

সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) লাইফ সাপোর্টে থাকা এরশাদ জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে বলে গতকাল জানিয়েছিলেন জি এম কাদের। সেদিন এরশাদের জন্য দোয়াও চান তিনি।

তিনি বলেন, ‘ডাক্তাররা আশা করছেন তিনি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠবেন। আরো দুই-তিন দিনের ভেতরে তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে তিনি স্বাভাবিক হয়ে যেতে পারেন বলে জানিয়েছেন ডাক্তাররা।’

জাপার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, ‘ওনার এখন সবচেয়ে বেশি দরকার আল্লাহর রহমত। আপনারা দোয়া করবেন তার জন্য। এছাড়া শুক্রবার সারাদেশের বিভিন্ন মহল্লায় ও মসজিদে যারা তার জন্য দোয়া প্রার্থনা করেছেন আমি ব্যক্তিগতভাবে এবং জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে আপনাদের সকলকে কৃতজ্ঞতা এবং ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

জিএম কাদের আরও বলেন, এর আগে শুক্রবার আমরা জানিয়েছিলাম, তার জন্য ‘বি পজেটিভ’ রক্তের প্রয়োজন। তখন বিভিন্ন মাধ্যমে খবরটি জেনে হাজারো মানুষ রক্ত দিতে ইচ্ছা পোষণ করেন। আমি নিজে ঢাকা সেনানিবাসের আর্মড ফোর্সেস ইনস্টিটিউট অব প্যাথলজির (এএফআইপি) ব্লাড ব্যাংকে গিয়ে দেখি শত শত মানুষ রক্ত দেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছেন। শুক্রবার পর্যন্ত তাকে সর্বমোট ২৮ ব্যাগ রক্ত দেওয়া হয়েছে। তার আগে ২৪ ঘণ্টায় আট ব্যাগ রক্ত দেওয়া হয় বিভিন্ন কারণে।

জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ দীর্ঘদিন ধরে রক্তের রোগ মাইলোডিসপ্লাস্টিক সিনড্রোমে ভুগছেন। তার অস্থিমজ্জা পর্যাপ্ত হিমোগ্লোবিন উৎপাদন করতে পারছে না। গত ২২ জুন সকালে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর এরশাদের ফুসফুস ও কিডনিতে সংক্রমণের বিষয়টি ধরা পড়ে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com