আবু জাহিরের ভাগ্য, রাখে আল্লা মারে কে।

আবু জাহিরের ভাগ্য, রাখে আল্লা মারে কে।

আবু জাহিরের ভাগ্য, রাখে আল্লা মারে কে?  

মোঃ সনজব আলীঃ ২০০৫ সালের আজকের দিনে দুর্বৃত্তদের গ্রেনেডের আঘাতে নিহত হন হবিগঞ্জের কৃতি সন্তান সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এম কিবরিয়া। সেই ঘটনায় নিহত হন আরো ৪ জন। ঘটনার সময় কিবরিয়ার খুব কাছেই ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব এডভোকেট মোঃ আবু জাহির। কিন্তু, কথায় আছে “রাখে আল্লাহ, মারে কে।” সেদিন অল্পের জন্য অলৌকিক ভাবে বেঁচে যান তিনি। বিভিন্ন দেশে চিকিৎসা শেষে সুস্থ্য হলেও শরীরে এখনো বয়ে বেড়াচ্ছেন অসংখ্য স্প্রিন্টারের যন্ত্রনা। বহু চড়াই-উৎরাই পেড়িয়ে বর্তমানে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ৩ বারের নির্বাচিত এমপি।

 

তার প্রচেষ্টায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে হবিগঞ্জে। বিশেষ করে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, শায়েস্থাগঞ্জকে উপজেলায় রুপান্তর, হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালকে ২৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ, বলভদ্র ব্রীজ ও আধুনিক স্টেডিয়াম নির্মাণ উল্লেখযোগ্য। অনেকে মনে করেন, তিনি এমপি নির্বাচিত না হলে হযতো এমন গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো আজও অবহেলায় পড়ে থাকতো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com