অর্থমন্ত্রীর ওপর ক্ষেপলেন কৃষিমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রীর ওপর ক্ষেপলেন কৃষিমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রীর ওপর ক্ষেপলেন কৃষিমন্ত্রী
অর্থমন্ত্রীর ওপর ক্ষেপলেন কৃষিমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের ওপর ক্ষেপেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক। বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) সকাল ১১ টায় সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত খাদ্য পরিকলপনা ও পরিধারণ কমিটির সভায় অর্থমন্ত্রী উপস্থিত না হওয়ায় তার ওপর ক্ষেপেন কৃষিমন্ত্রী। এদিন, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত খাদ্য পরিধারণ কমিটির সভাশেষে তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে এই ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘এ ধরনের একটি গুরুত্বপূর্ণ সভায় অর্থমন্ত্রী কেন উপস্থিত থাকবেন না? যেখানে সারাদেশের কৃষি ও কৃষকদের ভাগ্য নিয়ে সিদ্ধান্ত হয়, সে ধরনের একটি গুরুত্বপূর্ণ সভায় অর্থমন্ত্রীর উপস্থিত না থাকা খুবই দুঃখজনক।’

এ সময় পাশে উপবিষ্ট খাদ্য সচিব শাহাবুদ্দিন আহমদ বলেন, ‘হয়তো তিনি গুরুত্বপূর্ণ অন্য কোনও কাজে আছেন।’ তার এই বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘‘এই সভার চেয়ে অন্য কোনও সভা গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে না, যদি তা প্রধানমন্ত্রীর দফতরে না হয়ে থাকে। এ ক্ষেত্রে অন্য কোনও ‘কজ’ গ্রহণযোগ্য নয়।’’  তিনি বলেন, ‘আগের সরকারের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ কমিটির সব সভায় উপস্থিত থাকতেন। নতুন সরকারের এই মেয়াদে (১০ মাসে) এর আগে এই কমিটির আরও একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই সভায়ও অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল উপস্থিত ছিলেন না। অবশ্য ওই সময় অর্থমন্ত্রী চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ ছিলেন।’

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ কমিটির সভায় শুধু অর্থমন্ত্রী নন, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু, দুর্যোগ ব্যাবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমানও উপস্থিত ছিলেন না।

এ প্রসঙ্গে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ বিধায় এ সভার নোটিশ করা হয়েছে অনেক আগে। কাজেই সভায় উপস্থিত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করা তাদের উচিত ছিল। হয়তো তারা এ সভার গুরুত্ব বুঝতে পারেননি বলেই উপস্থিত থ্কার বিষয়টি নিশ্চিত করেননি। তবে, আমি আশাবাদী আগামী সভাগুলোয় তারা সবাই উপস্থিত থাকবেন।’

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ‘সকাল থেকেই অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল রাজধানীর শেরেবাংলা নগরস্থ পরিকল্পনা কমিশনের দফতরে ছিলেন। সেখানে গুরুত্বপূর্ণ কোনও সভা না থাকলেও অর্থমন্ত্রী দাফতরিক কিছু কাজে ব্যস্ত ছিলেন বলে বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা গাজী মো. তৌহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘দুপুরের পরপরই পরিকল্পনা কমিশনের দফতর থেকে বেরিয়ে বিমানবন্দরে যান অর্থমন্ত্রী। সেখান থেকে বেলা তিনটার ফ্লাইটে বিমানযোগে চট্টগ্রাম যান।’ অর্থমন্ত্রী  চট্টগ্রামের একটি খেলা বিষয়ক অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com