বিরল প্রজেরিয়া রোগে শিশু এখন বৃদ্ধ!

বিরল প্রজেরিয়া রোগে শিশু এখন বৃদ্ধ!

লোকালয় ডেস্ক : চিকিৎসা নিতে আল-আহাদ নামের এক বৃদ্ধর মতো দেখতে শারীরিক গঠনের শিশু আসে মাগুরা সদর হাসপাতালে। ১৩ বছর বয়সী শিশু আল আহাদ মাগুরা শহরতলীর পুলিশ লাইন পাড়ার জাহিদুর রহমানের পুত্র।

শারীরিক নানান সমস্যায় আক্রান্ত শিশুটিকে তার মা আসমা সুলতানা মাগুরা সদর হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন।

এরআগে মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার খালিয়া গ্রামের শিশু বায়োজিদের সন্ধান মেলে। বায়জিদের মৃত্যুর পরে এবার বিরল প্রজেরিয়া রোগে আক্রান্ত শিশু আল-আহাদ এর খোজ পাওয়া গেলো। এখন শিশু আহাদের চিকিৎসা নিয়ে বেশ চিন্তিত তার পরিবার। শিশুটির মা আসমা সুলতানা বলেন, আল-অাহাদ তাদের পরিবারের ২ সন্তানের মধ্যে বড়ো।

বর্তমানে তার বয়স ১৩ বছর। জন্মের সময় তার চেহারা ও শারীরিক গড়ন ছিলো অস্বাভাবিক। পরে মাগুরা ও ঢাকায় বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে চিকিৎসা করালেও সে আর স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসেনি। এখন তার পায়ের সমস্যার জন্য গত মঙ্গলবার মাগুরা সরকারি হাসপাতালে নিয়ে এসেছেন সাজার্রি বিভাগে। সেখানে সার্জারী বিভাগের চিকিৎসক ডা. শফিউর রহমান বলেন, আল-আহাদের শরীরে সার্জারী সমস্যা রয়েছে।

তবে তার চেহারা ও শারীরিক গঠন দেখে নিশ্চিত সে বিরল প্রজেরিয়া রোগে আক্রান্ত। তবুও সে সব কিছু বুঝতে পারে এবং কথাও বলতে পারে।

মাগুরা সদর হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. দেবাশিষ বিশ্বাস বলেন, আল আহাদ জটিল প্রজেরিয়া রোগে আক্রান্ত। জিনগত সমস্যার কারনে শিশুরা বিরল এ রোগের অক্রান্ত হয়। এরোগের তেমন কোন চিকিৎসা নেই। রোগাক্রান্তরা দ্রুত বার্ধক্যর দিকে ধাবিত হয় বলেও জানান এ চিকিৎসক।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com