‘২৬ অক্টোবর নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সিদ্ধান্ত ’

‘২৬ অক্টোবর নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সিদ্ধান্ত ’

‘২৬ অক্টোবর নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সিদ্ধান্ত ’
‘২৬ অক্টোবর নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সিদ্ধান্ত ’

লোকালয় ডেস্কঃ সড়ক পরিবহন সেতুমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ২৬ অক্টোবর নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে সমসাময়িক রাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী ২৬ অক্টোবর সব সিদ্ধান্ত হবে। সেদিন ওয়ার্কিং কমিটি, উপদেষ্টা কমিটি ও পার্লামেন্টারি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি বলেন, মন্ত্রিসভার আকার কেমন হবে, ছোট হবে নাকি বড় হবে সব বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। মন্ত্রিসভার আকার ছোট হলে নতুন করে দু’একজন যুক্ত হবেন, আর আকার বর্তমানের মতো থাকলে দু’একজন যুক্ত হতে পারেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, তবে এটা পরিষ্কার যে মন্ত্রিপরিষদ ছোট হওয়ার সম্ভাবনা নেই। গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে বলেছেন সেভাবেই সবকিছু হবে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যদি পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রিপরিষদ থেকে নির্বাচন হয় তাহলে বাংলাদেশে হতে কোনো সমস্যা দেখছি না।

গতবার ভিন্ন প্রেক্ষাপট ছিল। সেবার বিএনপি নির্বাচনে আসেনি। ফলে প্রধানমন্ত্রী নিজের থেকে মন্ত্রিপরিষদ ছোট করে নির্বাচন করেছেন। এবার বিএনপি নির্বাচনের আসার ঘোষণা দিয়েছে। এবার প্রেক্ষাপট ভিন্ন; তাই মন্ত্রিপরিষদ ছোট হওয়ার দরকার নেই, যোগ করেন ওবায়দুল কাদের।

নতুন কারা আসছেন মন্ত্রিসভায় এমন প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, নতুন দুই একজন মন্ত্রী অপজিশন থেকে নেওয়া হতে পারে। বিষয়টি নেত্রী চূড়ান্ত করবেন। আপনারা যেটা বলেছেন তরিকত ফেডারেশন বা বিএনএফ থেকে নেওয়া হবে সেটা সঠিক নয়। এটা ওয়ার্কিং কমিটির মিটিংয়ের পরে পরিষ্কার জানা যাবে।

মন্ত্রিসভা রেখে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনই হবে। রাজনৈতিক দলগুলো যারা নির্বাচনে অংশ নেবে তারা নির্বাচন কমিশনের আওতায় চলে যাবে, তখন মন্ত্রীদের দায়িত্ব কর্তব্য সীমিত হয়ে যাবে। কেবিনেট শুধু রুটিন ওয়ার্ক করবে, কোনো ধরনের মেজর ডিসিশন নিতে পারবে না।

জাতীয় নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করা হবে কি না এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনের শিডিউল ঘোষণার পর নির্বাচনী আচরণবিধি পুরোপুরি নির্বাচন কমিশনের আওতায় চলে যাবে। কমিশনের আচরণবিধি অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

মইনুলকে গ্রেপ্তার রাজনৈতিক নয় : সংবাদ সম্মেলনে ব্যরিস্টার মইনুলের গ্রেপ্তার বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, রাজনৈতিক কোনো কারণে নয়, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে ব্যক্তি অপরাধের কারণে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এখানে কোনো জোটের বিষয় নয়, এখানে ব্যক্তি অপরাধের বিষয়। তিনি একজন নারী সাংবাদিককে যেভাবে অ্যাবিউজ করেছেন। কোনো ভদ্রলোকের পক্ষে এ ধরনের আচরণ করা সম্ভব? তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, সেই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ধরনের ঘটনায় পার পেয়ে গেলে অনেকেই এমন অপরাধ করতে পারে। যাকে তাকে যে কেউ অশোভন, অমার্জিত গালি দিতে পারে। ঐক্যফ্রন্টের নব্য নেতা, এসব বিবেচনা করে নয় বরং ব্যক্তি হিসেবে তিনি যে অপরাধ করেছন সেজন্যই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, বলেন ওবায়দুল কাদের

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com