সংবাদ শিরোনাম :
চুনারুঘাটে মাদক নির্মূল কমিটির সভাপতি মাদক সহ বিজিবির হাতে আটক। হবিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান  মৃত্যু হিরণ মিয়াকে। চুনারুঘাটে গাঁজা আটকাতে গিয়ে মারধর শিকার হলেন ছাত্রলীগ নেতা। হবিগঞ্জে টমটম শ্রমিকদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৩০। দুইদিনে আমাদের সাথে সর্বমোট ৬৯১ জন মধ্যে ১৭০ জনকে প্রয়োজনীয় সেবা দিতে পুলিশ সাইবার কারনে সিলেটের কুমারগাঁও বিদ্যুত উৎপাদন কেন্দ্রের আগুন নিয়ন্ত্রণে। আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ হবিগঞ্জ পৌর শাখার কমিটি গঠন। চুনারুঘাটে বিজিবি’র ৬ জোয়ানের নামে আদালতে মামলা ॥ সিআইডি মাঠে। বানিয়াচংয়ে চুরি বৃদ্ধি, গভীর রাতে দোকান বন্ধের মাইকিং। বিদ্যুৎস্পৃষ্টে পুলিশ লাইন থেকে পড়ে আনসার সদস্যের মৃত্যু
২৪ ঘন্টায় মনের মানুষকে পাইয়ে দেবে ১ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ।

২৪ ঘন্টায় মনের মানুষকে পাইয়ে দেবে ১ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ।

২৪ ঘন্টায় মনের মানুষকে পাইয়ে দেবে ১ লক্ষ টাকার বিনিময়ে

মোঃ সনজব আলীঃ নবীগঞ্জ ইমামবাড়ী বাজারে ভণ্ড কবিরাজ আবির্ভাব।প্রতারনার শিকার সাধারণ মানুষ

হবিগঞ্জ নবীগঞ্জ সড়কের ইমামবাড়ি বাজারে আহাদুর শাহ নামে এক ভন্ড কবিরাজের আবির্ভাব হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে গ্যারান্টি সহকারে অভিনব কায়দায় লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রতিদিন জেলার বিভিন্ন স্হান থেকে সহজ সরল মানুষ তার নিয়োজিত দালালের মাধ্যমে আস্তানায় আসে।সরলমনা রোগীদের বিশেষ জ্বিন দ্বারা জওয়াব সওয়ালের মাধ্যমে তাবিজ, কবজ ও পানি, তেল, ঝাড় ফুক দিয়ে থাকে কৌশলে।

এলাকাবাসী অভিযোগ করেন, গত ৬ বছর সাধারণ মানুষকে ধোকা দিয়ে এ ব্যবসার সাথে করে আসলেও তার বিরুদ্ধে অজ্ঞাত কারণে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না।

তার আস্তানায় প্রতি শনিবার ও মঙ্গলবার জ্বীনের মাধ্যমে মানুষের বিভিন্ন সমস্যার প্রশ্ন-উত্তরের নাম করে হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা।

সরজমিনে ভুক্তভোগিদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আহাদুর মিয়া রোগ সারানোর নাম করে কোনো কোনো রোগীর কাছ থেকে ৫০০ থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত হাতিয়ে নেয়।শুধু তাই নয় মনের মানুষকে কাছে পাইয়ে দেবার কথা বলে যুবক যুবতীদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় টাকা। যাহার মূল্য হিসেবে কাছে এনে দেয়ার হাদিয়া ২৪ ঘন্টায় ১ লক্ষ টাকা, ৪৮ ঘন্টায় ৫০ হাজার টাকা, ১৪ দিনে ১২ হাজান টাকার বিনিময়ে।

সরজমিনে খবর নিয়ে জানা গেছে, ইসলামি শিক্ষা বা স্কুল শিক্ষা তার নূন্যতম যোগ্যতাও নেই। আলাপ কালে আহাদুর মিয়া জানায় তার শিক্ষাগত যোগ্যতা নেই বলে সে স্বীকার করে। তিনি নিজের নামও লিখতে পারে না।


গতকাল দুপুরে তার আস্তানায় গিয়ে দেখা যায়, তার আসনের উপর সাজানো রয়েছে বিভিন্ন গাছের চাল, ডাল, জড়, হরিণের চামড়া। মাটিতে পড়ে থাকা ওষুধের অপরিচ্ছন্ন বোতল। যেগুলো ব্যবহারে মানবদেহে ক্ষতি সাধন হতে পারে।

এসময় এক ভুক্তভোগী দম্পতি জানান, আমাদের কোনো সন্তান না থাকায় আহাদুর মিয়ার কাছে চিকিৎসা নিতে আসি।সন্তান পাইয়ে দেয়ার কথা বলে ১১ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে আরও লাগবে বলে জানায়। ভুক্তভোগী জনসাধারণ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি জানান, তার বিরুদ্ধে এখনো কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে অভিযোগ পেলে আমরা বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com