সংবাদ শিরোনাম :
ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিতে পারেন আ’লীগের প্রয়াত পররাষ্ট্র মন্ত্রী সামাদ আজাদ পুত্র ডন! বিএনপি’র পার্লামেন্টারী বোর্ডের মুখোমুখি হলেন হবিগঞ্জের ১৫ প্রার্থী আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) ঠাকুরগাঁওয়ের বেতনা সীমন্তে ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রকে চোরাকারবারি হিসেবে আটক করেছে- বিজিবি অবৈধ ভাবে ভারত থেকে দেশে ফেরার সময় শিশুসহ ৯ বাংলাদেশি নারী-পুরুষ আটক হবিগঞ্জে নির্বাচনে দায়িত্বে থাকবেন প্রায় ৭ হাজার আনসার ‘এরশাদকন্যা’র বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা ২৩ কিলোমিটার ইলেকট্রিক রেল লাইন স্থাপন করবে সরকার মেসেঞ্জারে বিশ্বজুড়ে বিভ্রাট শরিকদের ৬৫-৭০টি আসন দেওয়া হবে: ওবায়দুল কাদের
হেটমায়ারের সেঞ্চুরি, বাংলাদেশকে কঠিন চ্যালেঞ্জ ক্যারিবীয়দের

হেটমায়ারের সেঞ্চুরি, বাংলাদেশকে কঠিন চ্যালেঞ্জ ক্যারিবীয়দের

হেটমায়ারের সেঞ্চুরি, বাংলাদেশকে কঠিন চ্যালেঞ্জ ক্যারিবীয়দের

খেলাধুলা ডেস্ক : ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে সফরকারী বাংলাদেশকে বেশ বড় চ্যালেঞ্জই ছুড়ে দিয়েছে স্বাগতিকরা। গায়ানায় বুধবার দিবাগত রাতে দারুণ এক সেঞ্চুরি করেছেন শিমরন হ্যাটমায়ার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরি করা হ্যাটমায়ার তার দলকে নিয়ে যান ২৭১ রানে। টস জিতে বোলিং নেয়া কি শেষ পর্যন্ত মাশরাফির আফসোস হয়ে থাকবে? প্রথম ইনিংস শেষে প্রশ্নটা উঠে যাচ্ছে বেশ দৃঢ়ভাবেই।

 

হ্যাটমায়ার অবশ্য সেঞ্চুরিটাই মিস করতে পারতেন। কিন্তু তিনি যখন ৯৭ রানে দাঁড়িয়ে, তখন ক্যাচ মিস করেন সাকিব আল হাসান। একটুর জন্য সেঞ্চুরি মিস করতে যাওয়া হ্যাটমায়ার আর ভুল করেননি। তুলে নেন তার ক্যারিয়ারের প্রথম, কিন্তু দেশের মাটির প্রথম সেঞ্চুরি।

 

সেঞ্চুরি করার আগে পঞ্চম উইকেটে তিনি রভম্যান পাওয়েলকে নিয়ে গড়েন ১০৩ রানের জুটি। যা শেষ পর্যন্ত ক্যারিবীয়দের ইনিংসের সেরা জুটি হয়ে থাকে। রভম্যান ৪৪ রান করে ফিরে গেলেও হ্যাটমায়ার থামেন ১২৫ রান করে। ইনিংসের তিন বল বাকি থাকতে দশম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন তিনি। হ্যাটমায়ার তার ইনিংসে সাতটি ছয় ও তিনটি চার মারেন।

 

এ দিন ধীরে শুরু করেন দুই ক্যারিবীয় ওপেনার ক্রিস গেইল ও এভিন লুইস। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে মাশরাফির বলে এভিন লুইসের বিদায়ের মাধ্যমে ভাঙে জুটি। তার আগে তারা করেন মাত্র ২৯ রান। এই রানটা করতেই আধুনিক ক্রিকেটের দুই ধ্বংসাত্মক ব্যাটসম্যান গেইল ও লুইসের লেগে যায় ছয় ওভার। সপ্তম ওভারের প্রথম বলে এলবিডব্লিউ হন লুইস (১৮ বলে ১২)।

 

রাউন্ড দ্য উইকেট থেকে অফস্টাম্পের বাইরে বল ফেলেন মাশরাফি। এক পা সরে খেলেন লুইস। কিন্তু বলের সাথে ব্যাটের সংযোগ ঘটাতে ব্যর্থ হন তিনি। বল লাগে গিয়ে তার প্যাডে। আউট দিতে দ্বিতীয়বার ভাবেননি আম্পায়ার।

 

কিন্তু সন্দিহান ছিলেন লুইস। ওপেনিং সঙ্গী গেইলের সঙ্গে আলোচনা করে রিভিউর সিদ্ধান্ত নেন তিনি। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা যায়, আউটই হয়েছেন তিনি। মাশরাফির এনে দেয়া এই শুরু দারুণ দক্ষতায় সামনে এগিয়ে নিতে থাকেন মেহেদি হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

 

মিরাজকে টানা দুই বলে চার ও ছয় মারলেও গেইল স্পিনের বিপক্ষে এ দিন ছিলেন কম্পমান। এর সুবিধা পেতে লেগে যায় ১৪তম ওভারের চতুর্থ বল। এই ওভারে এসে মিরাজকে সুইপ করতে গিয়ে বিদায় নেন ক্রমেই স্থির হয়ে যাওয়া গেইল (৩৮ বলে ২৯)। তার বিদায়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ পুরোটাই ওঠে বাংলাদেশের হাতে।

 

এরপর দ্রুত আরো দুটি উইকেট তুলে নিলেও বাংলাদেশকে বিপদে ফেলেন হ্যাটমায়ার ও পাওয়েল জুটি। ১৮ ওভারেরও বেশি দীর্ঘ জুটিতে ১০৩ রান করেন তারা। যা ক্যারবীয়দের বিশাল পুঁজির মূল শক্তি হয়ে থাকে।

 

বাংলাদেশের হয়ে তিনটি উইকেট নিয়েছেন রুবেল হোসেন। ৪৯তম ওভারে ২১ রান দিয়ে আবার দলের বিপদও বাড়িয়েছেন তিনিই। দুটি করে শিকার সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমানের।

 

প্রথম ম্যাচ জিতে সিরিজে এগিয়ে থাকা বাংলাদেশ যদি আজ জিততে পারে, তবে এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ জেতাও হয়ে যাবে। কিন্তু কাজটা সহজ হওয়ার কথা নয়। আরো একবার ক্যারিবীয়দের ওয়ানডে সিরিজে হারাতে এই ম্যাচে ব্যাটসম্যানদের দিতে হবে নিজেদের সেরাটা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com