সংবাদ শিরোনাম :
শুল্ক ফাঁকির শতাধিক বিলাসবহুল গাড়ি এখন সিলেটে! দুবাইয়ে চাকরি দেয়ার কথা বলে টাকা আত্মসাত ॥ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা অবশেষে আবর্জনামুক্ত হচ্ছে হবিগঞ্জ শহরে আধুনিক স্টেডিয়ামের পাশ হবিগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে জামায়াত নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা অপরাধ কর্মকাণ্ড রোধে সতর্ক পুলিশ শাহজীবাজার মাজারে প্রশাসনের আদেশ অমান্য করে কাফেলার আয়োজন সংবাদ প্রকাশের পর গার্নিং পার্কে মিনি পতিতালয়ের সন্ধান ডিবির অভিযানে ৫ কলগার্লসহ ৩ খদ্দর আটক কোরেশনগরে হোটেল যুবরাজ থেকে লাশ উদ্ধার ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে আর্জেন্টিনা ছেলের বিয়ের দাওয়াতে বের হয়ে বাড়ি ফেরা হলো না মায়ের
হাসিনার সঙ্গে ‘ট্র্যাক টু’ আলোচনায় ঢাকায় প্রণব মুখার্জি, রোহিঙ্গা শিবিরে যাচ্ছেন না

হাসিনার সঙ্গে ‘ট্র্যাক টু’ আলোচনায় ঢাকায় প্রণব মুখার্জি, রোহিঙ্গা শিবিরে যাচ্ছেন না

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ভারতের রাষ্ট্রপতির পদ থেকে অবসরে যাওয়ার পর আজ রোববার চার দিনের সফরে বাংলাদেশে আসছেন প্রণব মুখার্জি। সফরের কর্মসূচিতে চট্টগ্রামে যাওয়ার কথা থাকলেও কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে যাবেন না সাবেক এ রাষ্ট্রপতি।

খবর আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, প্রণব মুখার্জির চার দিনের বাংলাদেশ সফর নানা কর্মসূচিতে ঠাসা। এর মধ্যে রয়েছে ঢাকায় আন্তর্জাতিক বাংলা সাহিত্য উৎসব থেকে শুরু করে চট্টগ্রামের রাউজানে সূর্য সেনের বাড়ি পরিদর্শন। কিন্তু এসব কর্মসূচি থাকলেও কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে যাবেন না তিনি।

এবারের সফরে প্রণবের প্রত্যক্ষ কোন রাজনৈতিক কর্মসূচি নেই ঠিকই। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ‘ট্র্যাক টু’ আলোচনা করতেই এই গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেশী দেশে আসছেন তিনি।

খবরে আরও বলা হয়, বাংলাদেশে জাতীয় নির্বাচনের সময়ে ভারতের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কটিও এখন যথেষ্ট স্পর্শকতার জায়গায় দাঁড়িয়ে। তিস্তা চুক্তি এখনও সুদূরপরাহত। রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে নয়াদিল্লির অবস্থানে হতাশ বাংলাদেশ। প্রণব মুখার্জি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের শিবিরে গেলে কিছুটা হলেও সুযোগ ছিল সেই ক্ষত মেরামতের।

কিন্তু কূটনৈতিক সূত্রের খবর, মোদি সরকার সেই ঝুঁকি নিতে নারাজ। প্রণব মুখার্জি যদি চট্টগ্রামে না যেতেন, তা হলে রোহিঙ্গা শিবির যাওয়ার প্রসঙ্গই উঠত না। কিন্তু চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবির আকাশপথে খুবই কাছে।

প্রণব মুখার্জির ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, তিনি নিজেও আগে ভেবেছিলেন রোহিঙ্গা শিবিরে যাবেন। এতে ভারত যে শরণার্থীদের প্রতি সহানুভূতিশীল সেই বার্তা যাবে।

কিন্তু ডানপন্থীদের বক্তব্য, প্রণব মুখার্জি গেলে আরও বেশি প্রশ্ন উঠবে। জানতে চাওয়া হতো, ভারত রোহিঙ্গা নিয়ে কী অবস্থান নিচ্ছে। ভারতের মিয়ানমার নীতি নিয়েও অস্বস্তিকর প্রশ্ন উঠে বিতর্ক বাড়তে পারে। আর তাই সচেতন ভাবেই এই না যাওয়ার সিদ্ধান্ত।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com