হবিগঞ্জ জলাবদ্ধতা নিরসনে মেয়রের সাথে নাগরিক কমিটির মতবিনিময়

হবিগঞ্জ জলাবদ্ধতা নিরসনে মেয়রের সাথে নাগরিক কমিটির মতবিনিময়

হবিগঞ্জ জলাবদ্ধতা নিরসনে মেয়রের সাথে নাগরিক কমিটির মতবিনিময়|

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : শহরের পানি নিষ্কাশন ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও জলাবদ্ধতা নিরসনে পৌর মেয়রের সাথে মতবিনিময় করেছেন হবিগঞ্জ নাগরিক কমিটি।

হবিগঞ্জ শহরের পানি নিষ্কাশন, ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও জলাবদ্ধতা নিরসনে পৌর মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছের সাথে মতবিনিময় করেছেন হবিগঞ্জ নাগরিক কমিটির নেতৃবৃন্দ। গতকাল দুপুরে পৌর ভবণে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় অংশ নেন হবিগঞ্জ নাগরিক কমিটির সহ-সভাপতি প্রফেসর ইকরামুল ওয়াদুদ, বৃন্দাবন সরকারি কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ ও ডাঃ মোঃ জমির আলী, কোষাধ্যক্ষ আলহাজ্ব ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, প্রাক্তন বিভাগীয় কমিশনার ফজলুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ আলী আজগর, কবি তাহমিনা বেগম গিনি, সাংগঠনিক সম্পাদক এনাম আহমেদ, বুল্লা সিংহগ্রাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফজলুল করিম, ব্যাংকার ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অ্যাডভোকেট মনসুর উদ্দিন আহমেদ ইকবাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, প্রাক্তন কমিশনার আব্দুল মোতালিব মমরাজ, মোল্লা জালাল উদ্দিন, নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আউয়াল তালুকদার, দৈনিক খোয়াইর বার্তা সম্পাদক বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন হবিগঞ্জ জেলা শাখার কোষাধ্যক্ষ মঈন উদ্দিন আহমেদ।

নাগরিক কমিটির দাবির প্রেক্ষিতে পৌর মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছ বলেন, আপনাদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি আপনাদের কাঙ্কিত উন্নয়ন করতে পারিনি। তার পরও শত প্রতিক‚লতার মাঝেও আমি আপনাদের কল্যানে হবিগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নে কাজ করতে সাধ্যমতো চেষ্টা করছি। তিনি জানান, শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে বেশ কয়েকটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে শহরের কোর্ট স্টেশন থেকে চৌধুরী বাজার পর্যন্ত মেইন রোডের পাশে কাভার ¯ø্যাবসহ বড় ড্রেন নির্মাণ। যার কাজ অচিরেই শুরু হবে। এছাড়া ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে শহরের উমেদ নগরে নতুন পানি ট্রিটম্যান্ট প্লান্ট স্থাপন করা হবে। এটি নির্মিত হলে পানি সমস্যা কমে আসবে।

তিনি হতাশা প্রকাশ করে বলেন, শহরের ময়লা আবর্জনা ফেলার জন্য সুবিদপুর ইউনিয়নের আতুকুড়া এলাকায় ২০২০ শতক জায়গা ক্রয় করা হয়। ক্রয়কৃত জায়গায় বাউন্ডারী দেয়াল নির্মাণ করতে গেলে এলাকাবাসী তাতে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে তারা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এ ব্যাপারে আইনের আশ্রয় গ্রহণ করা হলেও আজও তার কোন সমাধান হয়নি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উদ্যোগ না নেয়ায় তা আলোর মুখ দেখেনি। তিনি এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com