হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ আহত২০, আটক ৩

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ আহত২০, আটক ৩

এ.আর.রুমনঃ বানিয়াচং উপজেলা সদরের ৩নং দক্ষিণ পশ্চিম ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের পাড়াগাঁও মহল্লায় বাড়ির সিমানার জায়গা নির্ধারন না করে,মাঠি ফেলার জের ধরে দু’পক্ষের ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এতে উভয় পক্ষের নারী-পুরুষসহ অন্তত ২০ জনের মতো আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
সংঘর্ষের খবর পেয়ে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি রঞ্জন কুমার সামন্তের নেতৃত্বে ২৫/৩০ জনের মতো একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্হিতি নিয়ত্রনে আনেন।
এসময় পুলিশ ৩ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যান।
আটককৃতরা হলো ইছুব আলী(৫৫)জুয়েল(২৮)তাজুল ইসলাম(৩০)।
এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়,পাড়াগাও দেওয়ান বাড়ির মৃত নেশাই উল্বার পুত্র আব্দু খালেক ও মৃত ইন্তাজ উল্বার পুত্র আহাদ মিয়ার মধ্যে বাড়ির সিমানা নিয়ে বিরুদ চলে আসছিলো।

এবিরুদ নিস্পতি হতে না হতেই খালেক মিয়া ৩১মার্চ মঙ্গলবার তার নিজের জায়গা দাবী করে মাঠি ভরাটের কাজ শুরু করেন।এতে বাধা প্রদান করেন আহাদ মিয়া।তিনি বলেন এই জায়গাটি তাদের।এনিয়ে উভয়ের মধ্যে ঝগড়ার সূত্রপাত শুরু হয়।
বিষয়টি সমাধানের স্বার্থে উভয় পক্ষকে সিমানা নির্ধারন করে কাজ করার সিদ্ধান্ত দেন এলাকার তৃতীয় পক্ষের লুকজন।

এই সমাধানকে উপেক্ষা না করে মঙ্গলবার  রাত পৌনে দশটার দিকে উভয় পক্ষের লুকজন দেশীয় অস্র শস্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরেন।ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারীপুরুষসহ অন্তত ২০ জন আহত হন।আহতরা হলেন আব্দুর রাজ্জাক(৪৮)জোছনা বেগম(৪৫)আদই মিয়া(৪৫)জুয়েল(২৫)রাইদুল(২০)নূরআলী(৫০)সেবুল(১৮)সুহেদা(৩০)এছাড়াও অন্য আহতরা পুলিশের গ্রেফতার এড়াতে প্রাইভেটে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা যায়।

এদিকে সংঘর্ষ নিয়ত্রন করা কালীন সময়ে পুলিশ ৩ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
আটককৃত ৩ জনের মধ্যে তাজুল ইসলাম নামের ১জনকে ৮নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি মেম্বার কবির মিয়া ও পাশ্ববর্তী সহযোগী হিসাবে আব্দুল ব্যাপারী নামের বর্তমান অন্য এক মেম্বারকে সাথে নিয়ে,গভীর রাতে থানা থেকে তাজলকে,তাদের জিম্মায় ছাড়িয়ে আনেন।
তাজুল ইসলাম সংঘর্ষের খবর শুনে দেখতে গিয়ে পুলিশের হাতে আটক হয়েছিল। এছাড়া তাজুল কোন পক্ষের লুক না হওয়ার কারনে তাকে মেম্বারগনদের জিম্মায় ছেড়ে দেয় থানা পুলিশ।
এদিকে অন্য আটককৃত দু’জন আব্দু খালেকের লুকজন বলে থানা সূত্রে ও এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা গেছে।
আটককৃতদের বিরুদ্ধে দাঙ্গা-হাঙ্গামা করার অপরাধে মামলা রুজু করে জেল হাজতে প্রেরন করা হবে বলেও থানা সূত্রে জানায়।
এব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি রঞ্জন কুমার সামন্ত জানান,বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে এবং পুনঃরায় সংঘর্ষ এড়াতে পুলিশ ঐ এলাকায় টহল দিচ্ছে।এছাড়া ও সংঘর্ষকারী উভয় পক্ষের লুকজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com