হবিগঞ্জের দুই ইউপি উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহন চলছে

হবিগঞ্জের দুই ইউপি উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহন চলছে

হবিগঞ্জের দুই ইউপি উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহন চলছে

নিজস্ব প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জের দুই ইউনিয়নের উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহন শুরু হয়েছে।

জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আজ ১৪ অক্টোবর শুরু হয়েছে নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ও মাধবপুর উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নে উপ-নির্বাচন।

নির্বাচনকে ঘিরে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে ওই দুই ইউনিয়নে। চেয়ারম্যান পদে দুটি ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৯ জন প্রার্থী। এর মধ্যে দেবপাড়া ইউনিয়নে ৫ জন এবং নোয়াপাড়া ইউনিয়নে ৪ প্রার্থীর মধ্যে লড়াই হচ্ছে। তবে প্রত্যেকটি ইউনিয়নেই ত্রি-মুখি লড়াইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে বলে ধারণা করছেন সাধারণ ভোটারা। নির্বাচন শেষে ফলাফল ঘোষনার পরই বুঝা যাবে কে হাসছেন বিজয়ের হাসি ?।

দেবপাড়া ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী মুহিত চৌধুরীর (নৌকা), আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও টানা ৫ বারের সাবেক চেয়ারম্যান আ.খ.ম. ফখরুল ইসলাম কালাম (আনারস),

অপর বিদ্রোহী প্রার্থী ওই ইউনিয়নের সদ্য প্রয়াত চেয়ারম্যান এডভোকেট মাসুম আহমেদের (জাবেদ আলী)-এর পুত্র যুবলীগ নেতা শাহ রিয়াজ নাদির সুমনের (চশমা), অপরদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা এডভোকেট জালাল আহমেদ (ঘোড়া) ও অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী মাওলানা ফখরুল ইসলাম (মোটর-সাইকেল) প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে লড়ছেন।

নোয়াপাড়া ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়নে (নৌকা) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন শেখ মোজাহিদ বিন ইসলাম (নৌকা), মোঃ আদম খা (স্বতন্ত্র), এসএম জাবেদ (স্বতন্ত্র) ও মোঃ মহিউজ্জামান (স্বতন্ত্র)।

নির্বাচনে প্রার্থীদের নিয়ে শেষ হিসাব-নিকাশ করছেন ভোটাররা। অনেকেই করছেন চুল চেড়া বিশ্লেষন। প্রত্যেক ইউনিয়নেই ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে বলে ধারনা করছে সাধারণ ভোটাররা।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি মাধবপুর উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ মোঃ আলমগীর এবং ১৭ জুলাই নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এড. মাসুম আহমেদ জাবেদ (জাবিদ আলী) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এরপর স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় দুটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদ শুন্য ঘোষনা করে তফসিল দেয় নির্বাচন কমিশন। এ প্রেক্ষিতে আজ ১৪ অক্টোবর ওই ইউনিয়নে উপ-নির্বাচন।

মাধবপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, নির্বাচন কে সুষ্ঠ করতে সব রকম পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। কোন ধরনের অনিয়ম করতে দেওয়া হবে না। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ ভুমিকা পালন করা হবে।

নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদ বিন-হাসান জানান, শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রচার-প্রচারনা শেষে প্রার্থীদের মধ্যে নিরব ভূমিকা দেখা যাচ্ছে। তবে অনাকাঙ্কিত ঘটনা এড়াতে উপজেলা প্রশাসন তৎপর থাকবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com