সিসিক নির্বাচন: উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিলেন মেয়র প্রার্থীরা

সিসিক নির্বাচন: উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিলেন মেয়র প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়েছেন মেয়র প্রার্থীরা। ভোটারদের ভাষ্য, নির্বাচনে ছয় মেয়র প্রার্থী হলেও মূল লড়াই হবে আওয়ামী লীগের বদর উদ্দিন আহমদ কামরান এবং বিএনপির আরিফুল হক চৌধুরীর মধ্যে।

সোমবার সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার পরপরই ভোট দেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। নগরীর ১৮নং ওয়ার্ডের রায়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন ‘ধানের শীষ’ প্রতীকের প্রার্থী আরিফ।

ভোট প্রদান শেষে কেন্দ্র থেকে বের হয়ে আরিফুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘শত বাধা অতিক্রম করে জনগণ আমাকে ভোট দিবে এটা আমার বিশ্বাস। ইলেকশন মেকানিজম হলে প্রয়োজনে শাহাদাত বরণ করবো।’

‘নৌকা’ প্রতীকে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সমর্থিত মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান সকাল পৌনে ৯ টায় মহানগরীর ১৮নং ওয়ার্ডের সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে উপস্থিত থেকে ভোট দেন। এ তথ্য জানায় তার মিডিয়া উইং।

আরিফ-কামরান ছাড়াও মেয়র পদে আরো চার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন-নাগরিক ফোরামের ব্যানারে ‘দেয়াল ঘড়ি’ প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী নগর জামায়াতের আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের, ইসলামী আন্দোলন মনোনীত ‘হাতপাখা’ প্রতীকে ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন, সিপিবি-বাসদের ‘মই’ প্রতীকে আবু জাফর ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হরিণ প্রতীকে এহসানুল হক তাহের।

এছাড়া নাগরিক ফোরামের প্রার্থী নগর জামায়াতের আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের মহানগরীর ১নং ওয়ার্ডের চৌহাট্টাস্থ সরকারী আলিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে সকাল সাড়ে ৮টায় ভোট দেন।

ইসলামী আন্দোলনের ডা. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন সকাল ৯টায় নগরীর ২০নং ওয়ার্ডের সেনপাড়াস্থ নবীন চন্দ্র সরকারি প্রাথমিক কেন্দ্রে ভোট দেন।

এছাড়া ২নং ওয়ার্ডের দাড়ীয়াপাড়াস্থ রসময় মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকাল আটটার পরপরই ভোট দিয়েছেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মো. এহছানুল হক তাহের।

তাছাড়া সিপিবি-বাসদের মনোনীত মেয়র প্রার্থী আবু জাফর সকাল সাড়ে ৮টায় নগরীর ২২নং ওয়ার্ডের উপশরস্থ শাহজালাল উপশহর একাডেমী কেন্দ্রে ভোট দিযেছেন।

দলীয় প্রতীকের এ নির্বাচনে ছয় জন মেয়র প্রার্থী, সংরক্ষিত ৯টি ওয়ার্ডে ৬২ জন এবং ২৭টি সাধারণ ওয়ার্ডে ১২৭ জন কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। প্রথমবারের মতো দলীয় ভিত্তিতে মেয়র পদে নির্বাচন হওয়ায় প্রধান দুটি রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি এ নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে।

সিলেটের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও সিসিক নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ‘অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। নগরীর নিরাপত্তায় পর্যাপ্ত পুলিশ, বিজিবি ও র্যা বসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা রয়েছেন। নির্বাচন পর্যবেক্ষণে ইসির নিজস্ব কর্মকর্তারাও রয়েছেন।’

বিকাল ৪টা পর্যন্ত ১৩৪টি কেন্দ্রের ৯২৬ কক্ষে একযোগে ভোটগ্রহণ চলবে। নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী ছাড়াও ২৭টি সাধারণ ওয়ার্ডে ১২৭ জন ও ৯টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ৬২ জন প্রার্থী তাদের নিজ নিজ কেন্দ্রে ভোট দেবেন বলে জানিয়েছেন।

সিলেটে মোট ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ২১ হাজার ৭৩২ জন। এর মধ্যে এক লাখ ৭১ হাজার ৪৪৪ জন পুরুষ এবং এক লাখ ৫০ হাজার ২৮৮ জন নারী ভোটার। ইউএনবি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com