সংবাদ শিরোনাম :
শুল্ক ফাঁকির শতাধিক বিলাসবহুল গাড়ি এখন সিলেটে! দুবাইয়ে চাকরি দেয়ার কথা বলে টাকা আত্মসাত ॥ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা অবশেষে আবর্জনামুক্ত হচ্ছে হবিগঞ্জ শহরে আধুনিক স্টেডিয়ামের পাশ হবিগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে জামায়াত নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা অপরাধ কর্মকাণ্ড রোধে সতর্ক পুলিশ শাহজীবাজার মাজারে প্রশাসনের আদেশ অমান্য করে কাফেলার আয়োজন সংবাদ প্রকাশের পর গার্নিং পার্কে মিনি পতিতালয়ের সন্ধান ডিবির অভিযানে ৫ কলগার্লসহ ৩ খদ্দর আটক কোরেশনগরে হোটেল যুবরাজ থেকে লাশ উদ্ধার ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে আর্জেন্টিনা ছেলের বিয়ের দাওয়াতে বের হয়ে বাড়ি ফেরা হলো না মায়ের
সংবাদ প্রকাশের পর গার্নিং পার্কে মিনি পতিতালয়ের সন্ধান ডিবির অভিযানে ৫ কলগার্লসহ ৩ খদ্দর আটক

সংবাদ প্রকাশের পর গার্নিং পার্কে মিনি পতিতালয়ের সন্ধান ডিবির অভিযানে ৫ কলগার্লসহ ৩ খদ্দর আটক

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহরে বিভিন্ন আবাসিক হোটেল ও ফ্লাট বাসাতে দেহ ব্যবসা নিয়ে স্থানীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। সংবাদ প্রকাশ হবার পর পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলির নির্দেশে ডিবি পুলিশের ওসি সফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ শহরের গার্নিং পার্ক এলাকায় অভিযান চালিয়ে মিনি পতিতালয়ের সন্ধান পায়।
গতকাল মঙ্গলবার সকালে ওই এলাকার জনৈক জাকির হোসেনের বাসা থেকে অভিযান চালিয়ে ৫ কলগার্লসহ ৩ খদ্দরকে আটক করা হয়। অভিযান টের পেয়ে অন্যান্য খদ্দররা পালিয়ে যায়।
আটকরা হল, মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার কাটাবিল গ্রামের মৃত ছমেদ মিয়ার পুত্র খদ্দর শাকিল (২৫), একই গ্রামের আলফু মিয়ার পুত্র আরমান মিয়া (২৫), শহরের আনোয়ারপুর এলাকার আক্কাছ আলীর পুত্র বদরুল আলী (২৫), কলগার্ল মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার কাটাবিল গ্রামের বর্তমানে হবিগঞ্জ শহরের রামপুর এলাকার বাসিন্দা শাকিল মিয়ার স্ত্রী নিপা আক্তার (২০) ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয় নগর উপজেলার নাটাই গ্রামের হাবিব মিয়ার কন্যা সাথী আক্তার (২২), চম্পক নগর গ্রামের ইউনুছ আলীর কন্যা তাসপিয়া আক্তার আখি (২৫), জমসেদ ভূইয়ার কন্যা রুনা (২২), চুনারুঘাট উপজেলার ঘনশ্যামপুর গ্রামের মৃত আব্দুল মতলিবের কন্যা চক্রের সর্দার সেজিয়া আক্তার (২৫)।
এ সময় তাদের ঘর তল্লাশী করে ২৪ পিস হিরো কনডমসহ যৌন কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।
পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় দীর্ঘদিন ধরে ওই বাসায় মিনি পতিতালয় গড়ে তোলা হয় এবং বিভিন্ন স্থান থেকে নারীদের এনে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করা হয়। কলগার্লরা জানায়, ওই চক্র তাদের গোপন ভিডিও ধারণ করে তাদের কথামতো রাজি না হলে যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে এসব করায়। তাদের গডফাদার রয়েছে। তারাই মূলত এসবে নেতৃত্ব দেয় এবং প্রশাসনের সদস্যদের নাম ভাঙ্গিয়ে তাদের কাছ থেকে টাকা নেয়। সেজিয়া আক্তার এ চক্রের গডফাদার। সে আরও একাধিকবার এসব কাজে জড়িত থাকার দায়ে গ্রেফতার হয়েছে।
এ ঘটনায় ডিবি পুলিশ বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। গতকালই তাদেরকে কোর্টের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com