সংবাদ শিরোনাম :
শায়েস্তাগঞ্জে করোনা আতঙ্কের মধ্যে ডেঙ্গুর আশঙ্কা

শায়েস্তাগঞ্জে করোনা আতঙ্কের মধ্যে ডেঙ্গুর আশঙ্কা

lokaloy24.com

লোকালয় ডেস্কঃ  করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যে ডেঙ্গুর আশঙ্কা করছেন শায়েস্তাগঞ্জ পৌর এলাকার লোকজন। বর্ষার শুরুতেই পৌর এলাকার জনসাধারণ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন মশার উপদ্রবে। দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের মধ্যে আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে মশার উৎপাত। বর্তমানে পৌর শহরের সর্বত্র মশার উপদ্রবে বিপর্যস্ত জনজীবন। মশার উৎপাত নেই এমন জায়গা খুঁজে পাওয়া কঠিন। মশার কারণে সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগের শিকার শিক্ষার্থী, শিশু ও বৃদ্ধরা। ঘরে বাইরে সর্বত্র মশার উপদ্রব, এমতাবস্থায় ডেঙ্গুরসহ মশাবাহিত বিভিন্ন রোগবালাই বৃদ্ধির আশঙ্কা করছেন পৌরবাসী।

জানা যায়, পৌর এলাকার চারিদিকে ঘরে ঘরে সাধারণ জ্বরে ভোগছে লোকজন। বর্তমান পরিস্থিতিতে ডাক্তার কিংবা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার কোন ব্যবস্থা না থাকায় বিপাকে পড়েছেন সবাই। সাধারণ জ্বর নাকি অন্য কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। মরণব্যাধি করোনা নাকি ডেঙ্গুর তা নিশ্চিত হতে না পারায় আতঙ্কে রয়েছেন পৌর এলাকার জনসাধারণ। মশাবাহিত বিভিন্ন রোগবালাইয়ের আশঙ্কা থাকা সত্ত্বেও পৌর কর্তৃপক্ষ মশক নিধনে কোন কার্যকরী পদক্ষেপ নিচ্ছেন না। এ পরিস্থিতিতে মশার বংশবিস্তারের সকল উৎসসমূহ ধ্বংস করা আবশ্যক। এতে করে মশার ঘনত্ব যেমন হ্রাস পাবে ঠিক তেমনি মশার অনিষ্ট থেকে রেহাই পাবে জনসাধারণ।

শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোঃ ছালেক মিয়া বলেন, ইতোমধ্যে মশক নিধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে পৌর এলাকার ৯টি ওর্য়াডেই মশকনিধন কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। করোনার মধ্যেও পৌর এলাকার সবকয়টি ওর্য়াডে ঝোপঝাড় পরিষ্কার ও মশা নিধনে স্প্রে করা হয়েছে। বৃষ্টি বাদল শুরু হওয়ায় আবার মশার জন্ম হয়েছে। তবে আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com