লাখাইয়ের বুল্লা বাজারে পুলিশের দু দল সোর্সদের মধ্যে ভয়াবহ মারামারি

লাখাইয়ের বুল্লা বাজারে পুলিশের দু দল সোর্সদের মধ্যে ভয়াবহ মারামারি

লাখাইয়ের বুল্লা বাজারে পুলিশের দু দল সোর্সদের মধ্যে ভয়াবহ মারামারি।

লাখাই প্রতিনিধিঃ লাখাই উপজেলার স্থানীয় বুল্লা বাজারে 12 নভেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধায় লাখাই থানা পুলিশের সোর্সদের মধ্যে মোটরসাইকেল উদ্ধার নিয়ে ভয়ানক সংঘর্ষ হয়। জানা যায় গত ১১ নভেম্বর রাতে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার লাদিয়া এলাকার জনৈক এনাম এর একটি মোটরসাইকেল স্থানীয় বুল্লা বাজারে সিংহগ্রামের শাহ আলম আটক করেন। লাখাই থানা পুলিশকে এ বিষয়টি অবগত করেন পুলিশের সোর্স বলে পরিচিত বুল্লা গ্রামের মাজু মিয়ার ছেলে আলজার মিয়া। এর প্র এই বিষয়টি মিমাংসা করে মোটরসাইকেল এর মালিক এনামকে বুঝিয়ে দেয়া হয়। এসময় মোটরসাইকেল আটকের ঘটনায় পুলিশের আরেক সোর্স সিংহগ্রামের মৃত সায়েদ মিয়ার ছেলে সামছু মিয়ার নামে অভিযোগ আসায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে পরদিন ১২ নভেম্বর সন্ধায় লোকজন নিয়ে আলজার মিয়ার উপর হামলা চালিয়ে তাকে আহত করেন। ওই দুজনের পক্ষ নিয়ে তখন শতাধিক লোকের মধ্যে এক ভয়ানক সংঘর্ষ হয়। এ সময় দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দু দল একে অপরের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে। সংঘর্ষে আলজার মিয়া, আশিক মিয়া সহ আরো কয়েকজন আহত হন। সংঘর্ষে পুরো বাজারে এলাকায় ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ওইসময় কয়েকটি দোকানপাটও ভাঙচুর করা হয়। এর পর লাখাই থানার ওসি তদন্ত মহিউদ্দিন সুমন এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স এসআই শফিকুর রহমান ও এস আই সজীব দেব রায় সহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ বিষয়ে বুল্লা বাজারের ব্যবসায়ী মাসুকুর রহমান মাসুক বলেন “এভাবে এই সোর্সদের মধ্যে বুল্লা বাজারে এ ধরনের হামলা পাল্টা হামলার ঘটনা।

 

ঘটলে বাজারে ব্যবসায়ীদের ব্যবসা করা কঠিন হয়ে পড়বে”। এ বিষয়ে লাখাই থানা পুলিশের এসআই সজীব দেব রায় বলেন ”মোটরসাইকেল এর বিষয়টি মীমাংসা করে এর মালিক এনামকে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছিল। আলজার মিয়া ও সামছু মিয়া পরে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মনোমালিন্যের জের ধরে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এব্যাপারে অভিযোগ প্রাপ্তি সাপেক্ষে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com