রিক্সার ধাক্কায় চিরদিনের জন্য থেমে গেলো প্রাপ্তির জীবন

রিক্সার ধাক্কায় চিরদিনের জন্য থেমে গেলো প্রাপ্তির জীবন

রিক্সার ধাক্কায় চিরদিনের জন্য থেমে গেলো প্রাপ্তির জীবন
রিক্সার ধাক্কায় চিরদিনের জন্য থেমে গেলো প্রাপ্তির জীবন

লোকালয় ডেস্কঃ ফুটফুটে এই নিস্পাপ মুখটি এখন আর দুনিয়ায় নেই। স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে রিক্সার ধাক্কায় প্রাণ হারিয়েছে সুরা-ইয়া তাসনিম প্রাপ্তি। অথচ বগুরার এই শিশুটির ছিল সুন্দর একটি রুটিন। সেই মোতাবেক প্রথম শ্রেণীতে পড়ুয়া প্রাপ্তির স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে ঘুমানোর কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই চির দিনের জন্য ঘুমিয়ে পড়লো শিশুটি।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় স্কুল ছুটি শেষে মায়ের সাথে প্রাপ্তি ব্যাটারী চালিত রিক্সাযোগে বাড়ি ফেরার পথে বগুড়া শহরের কামারগাড়ী এলাকায় পৌঁছলে অপর একটি ব্যাটারী চালিত রিক্সা পিছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে রিক্সা যাত্রী মা সাবিয়া খাতুন (৩২) ও কন্যা সুরা-ইয়া- তাসনিম প্রাপ্তি (৭) ছিটকে পড়ে আহত হয়। রিক্সা থেকে পড়ে যাওয়ার পরই রিক্সার লোহার এক্সেল শিশু প্রাপ্তির মাথায় আঘাত লেগে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

নিহত প্রাপ্তি বগুড়া শহরের ইউনিক কিন্ডার গার্টেনের ১ম শ্রেণীর ছাত্রী। তার পিতা বগুড়া শহরের ছোট বেলাইল এলাকার ইব্রাহীম হোসেন। তিনি অগ্রণী ব্যাংকের বগুড়ার শাজাহানপুর শাখার ব্যবস্থাপক। বগুড়া ফায়ার সার্ভিস কর্মী ও স্থানীয় পথচারিরা দুইজনকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা প্রাপ্তিকে মৃত্যু ঘোষণা করে। এসময় মা সাবিয়াকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

প্রাপ্তির মৃত্যুর পর তার মা সাবিহা বিলাপ করে বলতে থাকে, মেয়েকে বাসায় নিয়ে খাইয়ে দিয়ে ঘুমিয়ে দেব। কিন্তু, সে তো রাস্তার পাশেই ঘুমিয়ে পড়েছে।
বগুড়া সদর থানার ওসি এমদাদ হোসেন জানান, দুটি রিক্সার ধাক্কায় শিশু প্রাপ্তি নিহত হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বগুড়ার আদমদিঘি থানার সান্তাহার পৌর এলাকার মাছ বাজারে ঢুকে পড়ে। এসময় মাছ বাজারের রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি রিক্সাভ্যানকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক বুলু মিয়া (৫০) মারা যায়। সে আদমদিঘি উপজেলার সান্তাহারের বশিপুর গ্রামের মোঃ ইউনুসের পুত্র। এই ঘটনায় আহত পার নওগাঁর তছির মিয়ার পুত্র রিক্সাভ্যান যাত্রী বাবু মিয়াকে (৪৮) উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।

আদমদিঘি থানার ওসি আবু সাঈদ মোঃ ওয়াহেদুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনার জন্য দায়ি ওই ট্রাকের হেলপার ট্রাকটি চালিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মাছ বাজারের রাস্তা দুর্ঘটনা ঘটে এবং ২জন নিহত হয়েছে। ট্রাকের হেলপার নওগাঁর রাজাপুর গ্রামের আব্দুল হামিদের পুত্র মোঃ শাকিল (২০) আটক ও ট্রাকটি আটক করে থানায় নেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com