যে খাবারটি বাদ দিলে বাড়ে টাক পড়ার ঝুঁকি

যে খাবারটি বাদ দিলে বাড়ে টাক পড়ার ঝুঁকি

যে খাবারটি বাদ দিলে বাড়ে টাক পড়ার ঝুঁকি
যে খাবারটি বাদ দিলে বাড়ে টাক পড়ার ঝুঁকি

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ  চুল পড়া নিয়ে চিন্তার শেষ নেই অনেকেরই। বিশেষ করে চুল পড়তে পড়তে যাদের টাক হয়ে যাবার উপক্রম, তারা পরচুলা, হেয়ার ট্রান্সপ্লান্ট, গ্রোথ ক্রিম এমন অনেক প্রতিকারের পেছনে ছুটছেন। আসলে কিন্তু টাক হবার পেছনে দায়ী হতে পারে আপনার খাদ্যভ্যাস। এক গবেষণায় দেখা গিয়েছেন, যারা নিরামিষাশী, তাদের মাথায় টাক পড়ে অনেক দ্রুত।

যারা মাংস খাওয়া বাদ দিয়ে দেন, তাদের শরীরে চুল সুস্থ রাখার জন্য জরুরী উপাদানগুলো থাকে না।  গরু, খাসি, মুরগীর মাংসে শরীরের জন্য দরকারি অনেক উপাদান থাকে, যেমন আয়রন।  এসব মাংস এড়িয়ে চললে চুল পড়া বাড়তে পারে।

নারীর তুলনায় পুরুষের টাক পড়তে দেখা যায় বেশি। এর পেছনে কারণ হিসেবে থাকতে পারে পারিবারিক ইতিহাস, ত্বকের সমস্যা যেমন সোরিয়াসিস বা একজিমা, থাইরয়েডের সমস্যা এবং পুষ্টির অভাব। বিশেষ করে শরীরে আয়রনের অভাব হলে চুল পড়তে পারে, কারণ আয়রন নতুন চুল গজানোর জন্য জরুরী।

২০০৬ সালে ৪০ বছরের গবেষণার এক বিশ্লেষণ থেকে দেখা যায়, নিঃসন্দেহে আয়রনের অভাবের সাথে চুল পড়া সম্পর্কিত। অন্যদিকে আয়রনে সমৃদ্ধ খাবার খেলে চুল পড়া বন্ধ হতে পারে, এমনকি তা নতুন চুল গজানোর জন্যেও সাহায্য করতে পারে।  যার মাথা টাক হয়ে যাচ্ছে তার অ্যানিমিয়া (রক্তাল্পতা) থাকুক আর না থাকুক, শরীরে আয়রনের অভাব দূর করতে পারলে চুল পড়াও কমে যাবে।

সুস্থ থাকার জন্য একজন পুরুষের দৈনিক অন্তত ৮ মিলিগ্রাম আয়রন থাকা উচিত খাবারে। আবার শুধু যে মাংস খেলেই আয়রনের অভাব মিটবে তাও নয়। পালং শাক, শিম এবং শুকনো ফলেও আয়রন থাকে। কিন্তু মাংসেই শুধুমাত্র থাকে ‘হিম’ ও ‘নন-হিম’ এই দুই ধরণের আয়রন, অন্যদিকে নিরামিষ খাবারে শুধুমাত্র ‘নন-হিম’ ধরণের আয়রন থাকে। এ কারণে নিরামিষভোজীরা আয়রনের অভাবে ভুগতে পারেন।  আয়রন ট্যাবলেট খাওয়ার আগে অবশ্যই আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলে নিন, কারণ আয়রনের অভাবের মতো এর আধিক্যও শরীরের ক্ষতি করতে পারে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com