মেহেদির রঙ না শুকাতেই শশুরবাড়িতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

মেহেদির রঙ না শুকাতেই শশুরবাড়িতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

মেহেদির রঙ না শুকাতেই শশুরবাড়িতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু
মেহেদির রঙ না শুকাতেই শশুরবাড়িতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

শাহজাদপুর প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে মনিরুল ইসলাম (২২) নামের এক যুবকের শশুরবাড়িতে রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। নিহত মনিরুল ইসলাম উপজেলার বাড়াবিল উত্তর পাড়ার জুলহক প্রামাণিকের ছেলে।

ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, শাহজাদপুর উপজেলার বাড়াবিল উত্তর পাড়ার জুলহক প্রামাণিকের বড় ছেলে মনিরুল ইসলাম (২২) এর সাথে এক মাস আগে পৌর শহরের শক্তিপুর পশ্চিম পাড়ার বাসিন্দা মৃত মুক্তার মেয়ে মুক্তি (১৮) এর সাথে বিয়ে হয়। নিহতের স্বজনদের অভিযোগ বিয়ের পর থেকেই স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বনিবনা হতোনা।

নিহতের বাবা ও মায়ের অভিযোগ পরিকল্পিতভাবে মনিরুলকে হত্যা করেছে শশুরবাড়ির লোকজন। তারা জানায়, গতকাল রাত ৯ টায় মনিরুল তার স্ত্রী মুক্তি কে নিয়ে শশুরবাড়ি যায়। রাত ১০ টায় মনিরুল তার বাবাকে মোবাইল ফোনে কল করে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া লেগেছে বলে জানায়। পরে রাত ১ টায় শশুরবাড়ির লোকজন মনিরুলের বাবাকে ফোন করে ডেকে নিয়ে যায়।

হাসপাতালের উদ্দেশে নিয়ে যাওয়ার সময় মনিরুলের বাবা তাঁকে মৃত অবস্থায় পায় এবং পরে এনায়েতপুর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মনিরুল কে মৃত্য ঘোষণা করে।

নিহতের স্ত্রী মুক্তি জানান, রাতে ঘুম থেকে জেগে স্বামীকে বিছানায় গড়াগড়ি করা অবস্থায় দেখতে পায় এবং পরে স্থানীয় পিপিডি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিতে বলে। সেখানে ডাক্তার না থাকায় তাঁকে মুমূর্ষু অবস্থায় এনায়েতপুর খাজা ইউনুস মেডিক্যাল হাসপাতালে নিলে ডাক্তার মনিরুলকে মৃত ঘোষণা করে।

এদিকে পিপিডি ট্রাস্ট হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তার ডাঃ আব্দুর রাজ্জাক রবিনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, মনিরুল কে এখানে মৃত অবস্থায় নিয়ে আসা হয়েছিল। তাদের স্বজনদের জিজ্ঞাসা করায় তারা জানায় মনিরুল কীটনাশক পান করেছিল।

এদিকে শাহজাদপুর থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাকিবুল হুদা, এসআই মোস্তাফা, এসআই আফজাল সহ পুলিশের একটি দল।

শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমান জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিবার থেকে মামলা দায়ের করলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com