মেসি-রোনালদোহীন এল ক্লাসিকো আজ

মেসি-রোনালদোহীন এল ক্লাসিকো আজ

মেসি-রোনালদোহীন এল ক্লাসিকো আজ
মেসি-রোনালদোহীন এল ক্লাসিকো আজ

ক্রীড়া ডেস্ক : এল ক্লাসিকো। শুধু উত্তেজনার বারুদে ঠাসা বিশ্বের অন্যতম সেরা দুই ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনার দ্বৈরথ নয় এটা। দুই ক্লাবের সমর্থকদের কাছে এটা ফুটবলের চেয়েও বেশি কিছু।

আজ সেই এল ক্লাসিকো মহারণ। ন্যু ক্যাম্পে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর লা লিগার ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত সোয়া নয়টায়।

অবশ্য এবারের এল ক্লাসিকো নিয়ে চলছে এক ধরনের হাহাকার। লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো না থাকার হাহাকার। গত এক দশক ধরে এল ক্লাসিকো মানেই ছিল এই দুজনের দ্বৈরথ। অথচ দুই তারকার কেউই নেই এবার।

মৌসুমের শুরুতেই রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে চলে গেছেন রোনালদো। ক্লাসিকোতে রোনালদোর না থাকাটা নিশ্চিত হয়েছিল তাই আগেই। কিন্তু কিছুদিন আগে ডান হাতের কবজির হাড়ে চিড় ধরায় তিন সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেছেন মেসিও।

এল ক্লাসিকোতে মেসি-রোনালদোর কেউই খেলননি, এমনটা সবশেষ দেখা গেছে ২০০৭ সালের ডিসেম্বরে। সময়ের সেরা দুই তারকার অনুপস্থিতিতে আজকের এল ক্লাসিকো রঙ হারাবে বলে মনে করছে অনেকে। লা লিগার সভাপতি হাভিয়ের তেবাস অবশ্য তা মনে করেন না।

তেবাসের মতে, মেসি-রোনালদো ক্লাসিকোতে না থেকেই বরং কিছু হারিয়েছেন, ‘আমার মনে হয় ক্রিস্টিয়ানো ও মেসিই ক্লাসিকোতে না থেকে কিছু হারিয়েছে। ক্লাসিকো কিছু হারায়নি। কারণ, এটা দারুণ দুটি দলের সর্বোচ্চ পর্যায়ের লড়াই। আর এই দলগুলো খেলোয়াড়দের চেয়ে বড়।’

বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড লুইস সুয়ারেজও মনে করেন, মেসি-রোনালদোর অনুপস্থিতিতে এল ক্লাসিকোর উত্তেজনা কমবে না, ‘এল ক্লাসিকো সব সময়ই এল ক্লাসিকো। এটা এমনই ম্যাচ, তা যে অবস্থাতেই হোক না কেন, উত্তেজনা থাকবেই। মেসি রোনালদো না থাকায় উত্তেজনার খুব একটা কমতি হবে না।’

আগের দিন রিয়াল সোসিয়েদাদকে হারিয়ে বার্সেলোনাকে টপকে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠেছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। আজ রিয়ালকে হারালে কিংবা ড্র করলেই শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করবে বার্সা।

অন্যদিকে তালিকার অষ্টম স্থানে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। তারা হেরেছে শেষ দুটি লিগ ম্যাচেই। দলের এমন বাজে অবস্থায় চাকরি হারানোর শঙ্কায় আছেন কোচ জুলেন লোপতেগুই। আজকের ক্লাসিকো তাই তার কাছে অগ্নিপরীক্ষা।
এল ক্লাসিকোর আগে কিছু পরিসংখ্যান

*রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে শেষ ২১ লা লিগা ম্যাচেই গোল করেছে বার্সেলোনা (৪৮ গোল)। আজও গোল করলে ক্লাসিকোর ইতিহাসে লিগে টানা সবচেয়ে বেশি ম্যাচে গোলের রেকর্ড স্পর্শ করবে তারা। ১৯৫৯ থেকে ১৯৬৯ পর্যন্ত টানা ২২ ম্যাচে গোল করেছিল রিয়াল।

*ন্যু ক্যাম্পে শেষ তিন লিগ ম্যাচে অপরাজিত রিয়াল (১ জয়, ২ ড্র)। বার্সার মাঠে তারা কখনো টানা চার ম্যাচে অপরাজিত থাকতে পারেনি।

*রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে মেসির প্রথম ম্যাচের পর আর্জেন্টাইন তারকাকে ছাড়া ক্লাসিকো জিততে পারেনি বার্সা (১ ড্র, ১ হার)।

*রোনালদো ক্লাবে থাকাকালীন তাকে ছাড়া বার্সার বিপক্ষে দুই ম্যাচ জিতেছে রিয়াল।

*২০১৪-১৫ মৌসুমে অভিষেকের পর রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে লিগে ছয় গোল করেছেন লুইস সুয়ারেজ, এই সময়ে যা দুই দলের যেকোনো খেলোয়াড়ের সর্বোচ্চ।

*বার্সেলোনা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে রিয়ালের বিপক্ষে ২০ ম্যাচের ১২টি হেরেছেন (৬ জয়, ২ ড্র)। এর আগে তিনি অ্যাথলেটিক বিলবাও, এসপানিওল, ভিয়ারিয়াল ও ভ্যালেন্সিয়ার কোচ ছিলেন।

*কোচ হিসেবে জুলেন লোপতেগুইয়ের এটাই প্রথম এল ক্লাসিকো। রিয়ালের শেষ ছয় কোচের পাঁচজনই বার্সার বিপক্ষে তাদের প্রথম ম্যাচে হেরেছিলেন। শুধু জিনেদিন জিদান জয় পেয়েছিলেন, ২০১৬ সালের এপ্রিলে ন্যু ক্যাম্পে ২-১ গোলে।

*এবারের লা লিগায় প্রথম ৯ ম্যাচে রিয়ালের পয়েন্ট মাত্র ১৪, যা ২০০১-০২ মৌসুমের (১০ পয়েন্ট) পর তাদের সবচেয়ে বাজে শুরু। আর এবার তাদের গোলসংখ্যা (১৪) ২০০৪-০৫ মৌসুমের পর সবচেয়ে কম।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com